প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দুই দিনের লকডাউনে পশ্চিমবঙ্গ, দিনের শুরুতেই আটক ১৩৯ জন

ডেস্ক রিপোর্ট : করোনা ঠেকাতে পশ্চিমবঙ্গে চালু হয়েছে সাপ্তাহিক লকডাউন। এ পর্বে পর পর দুদিন বন্ধ থাকবে অফিস, বাজার ও চলাচল। আর লকডাউন না মানায় সকাল থেকে শুরু হয়েছে ধরপাকড়।

আনন্দবাজার পত্রিকা জানায়, বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার রাজ্য জুড়ে সার্বিক লকডাউন পালিত হবে। এর আগে পর পর দুই দিন লকডাউনের পরিকল্পনা থাকলেও শেষ পর্যন্ত তা বাতিল হয়ে যায়।

এ পর্যন্ত একদিনের লকডাউনগুলো মোটের ওপরে সফল হলেও আমজনতাকে টানা দুই দিন ঘরবন্দী করে রাখা যাবে কি-না, তা নিয়ে উদ্বেগে র‌াজ্য সরকার। আগের দিনগুলোর মতো এবারেও নিয়ম না মেনে অকারণে বাইরে বেরোলে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে পুলিশ -প্রশাসন।

লকডাউনের আগে বুধবার বিভিন্ন দোকান-বাজারে জনতার ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো। কলকাতার রাস্তায় এ দিন গাড়ির সংখ্যাও ছিল তুলনামূলকভাবে বেশি। উত্তর ও মধ্য কলকাতার বিভিন্ন রাস্তায় যানজটও হয়েছে। মাস্ক ব্যবহার না করায় কলকাতা পুলিশের শাস্তির মুখে পড়েছেন অনেকে।

স্থানীয় প্রশাসন জানায়, আগের সাপ্তাহিক লকডাউনের দিনগুলোতে যেমন বন্দোবস্ত ছিল এবার তেমনই থাকবে। দোকান, বাজার বন্ধ থাকবে। গুরুত্বপূর্ণ এলাকাগুলোতে থাকবে নজরদারি। কলকাতার যে সব এলাকায় আগে লকডাউনে নিয়ম ভাঙার ঘটনা বেশি ঘটেছে, সেখানে অতিরিক্ত নজর রাখতে বলা হয়েছে। প্রতিটি কমিশনারেট এবং জেলা পুলিশকেও অতিরিক্ত বাহিনী মোতায়েন করতে বলা হয়েছে।

আরও বলা হচ্ছে, যে জেলা ও এলাকায়ে বেশি কভিড রোগী রয়েছেন সেখানে বেশি কড়াকড়ি থাকবেই। তবে সার্বিকভাবে জরুরি সেবায় ছাড় দেওয়া হবে।

এ দিকে জি নিউজ স্থানীয় সময় সকাল ৮টা নাগাদ জানায়, সকাল থেকে এখনো পর্যন্ত লকডাউন না মানার কারণে পুলিশ ১৩৯ জনকে গ্রেপ্তার করেছে। অকারণে রাস্তায় বেরোনোর ১৬টি গাড়িকে আটক করা হয়েছে। মাস্ক না থাকার কারণে ৩৮২ জনকে আটক করা হয়েছে আর যেখানে সেখানে থুতু ফেলে আটক ২১ জন।

বৃহস্পতিবার সকালে লকডাউন শুরু হওয়ায় মধ্যরাতেই পালিত হলো রাজীব গান্ধীর জন্মদিন। কংগ্রেসের আইএনটিইউসি কর্মীরা পিপিই পরে শহরের বিভিন্ন জায়গায় প্রায় সব রাজীব গান্ধীর মূর্তি স্যানিটাইজ করেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত