প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১]সালমান খানকে হত্যার পরিকল্পনা করেছিল দুষ্কৃতকারীরা

বিনোদন ডেস্ক: [২] নিয়মিত ভাইজানের বান্দ্রার বাড়ির ওপর ছিল নজরদারি৷ রেইকি করা হয়েছিল আশপাশ৷ কখন তিনি বাড়ির বাইরে যান, কোথায় কোথায় যেতেন- সবই নজরে রাখা হতো৷ তবে শেষ পর্যন্ত পুলিশের জালে ধরা পড়েছে দুষ্কৃতকারীরা।

[৩] পুলিশের বরাত দিয়ে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, প্রকাশ্যে এসেছে সালমানকে হত্যার ছক। জি নিউজ, আনন্দ বাজার

[৪] শনিবার রাহুল সংঘ নামে এক শার্প শুটারকে গ্রেপ্তার করে ফরিদাবাদ পুলিশের ক্রাইম ব্রাঞ্চ৷ সঙ্গে ধরা পড়ে আরও চার ব্যক্তি। রাহুলের কাছ থেকে উদ্ধার হয় গুলি ভরা পিস্তল।

[৫] ফরিদাবাদের ডিসিপি (হেডকোয়ার্টার) রাজেশ দুগ্গল জানান, গ্যাংস্টার লরেন্স বিষ্ণোই জানুয়ারি থেকে রাহুলকে বিশেষ নজর রাখতে বলেছিল সালমানের ওপর এবং সুযোগ বুঝে হত্যার নির্দেশ দিয়েছিল।

[৬] পুলিশ আরও জানায়, আপাতত লরেন্স রয়েছে যোধপুর জেলে। তবে জেলে থাকলেও সেখান থেকেই খুনের পরিকল্পনা করে সে।

[৭] উত্তর প্রদেশের ফরিদাবাদের বাসিন্দা প্রবীণ নামে এক রেশন ডিলারকে খুনের দায়ে রাহুলকে গ্রেপ্তার করেছিল পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদের সময় এ চাঞ্চল্যকর তথ্য পায়।

[৮] লরেন্সের হয়ে সালমান খানকে খুনের ষড়যন্ত্রের দায়ে হায়দরাবাদ থেকে ২০১৮ সালে গ্রেপ্তার করা হয় সম্পত নেহরাকে। বিষ্ণোই সম্প্রদায়ের সদস্য লরেন্স। এই বিষ্ণোই সম্প্রদায় কৃষ্ণসার হরিণ সংরক্ষণ করে। ২০১৮ সালে সালমান রাজস্থানের যোধপুরে দুটি কৃষ্ণসার হরিণ হত্যা করেছিলেন। সেই কারণেই লরেন্স সালমানকে মেরে ফেলার চেষ্টা করেন বলে মনে করছে পুলিশ। সম্পাদনা: জেরিন আহমেদ

২০১৮ সালে আটক হওয়া সম্পত নেহরা ছিল লরেন্সের ডানহাত। কিন্তু রাহুল সেই তুলনায় নবিশ বলে জানায় পুলিশ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত