প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] সাইবার সেনা নিয়ন্ত্রণ করতে চাইছে সৌদি আরব

মিনহাজুল আবেদীন : [২] তারা বিভিন্ন ধরনের বাড়াবাড়ি করছে। যা এখন সৌদি সরকারের জন্য অস্বস্তিকর হয়ে দাঁড়িয়েছে। ফলে সরকার তা এখন নিয়ন্ত্রণ করতে চাইছে। ভোয়া

[৩] জানা গেছে, সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ আল সৌদ তার ছেলে মোহাম্মদ বিন সালমানকে ২০১৫ সালে সিংহাসনের উত্তরাধিকার ঘোষণা করেন। এরপর রক্ষণশীল দেশটিতে বিন সালমানের অর্থনৈতিক ও সামাজিক সংস্কারের উদ্যোগ আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বেশ সুনাম কুড়ায়। সালমানের অতি জাতীয়তাবাদী পরিবর্তনের পথ ধরেই এই সাইবার সেনাদলের উত্থান। অনেক দেশে রাজনৈতিক বক্তৃতা নিয়ে বিকৃত ট্রল প্রচলিত রয়েছে। তবে সৌদি আরবে তথাকথিত সাইবার ‘মাছি’ হিসেবে রাষ্ট্রীয় নীতির পক্ষের কাজ করার কথা বলে সৌদি শাসকদের ছবি ব্যবহার করে থাকেন। এ সাইবার সেনাদল এখন দ্রæত ক্ষমতাশালী শক্তি হয়ে উঠছে। এএফপি

[৪] এই সেনাদলের বিভিন্ন পোস্টে সৌদির নিরাপত্তা সংস্থাকে ট্যাগ করা হয়। একসঙ্গে সবাই কারও বিরুদ্ধে অভিযোগ দেওয়ার ফলে তার জন্য জিজ্ঞাসাবাদ, চাকরিচ্যুতি, এমনকি নিপীড়নের কারণ হয়ে দাঁড়ায়। এমনকি বিভিন্ন অ্যাকাউন্ট থেকে এমনভাবে হুমকি দেওয়া হয় এবং রাষ্ট্রীয় প্রতীক ব্যবহার করা হয় যেন এগুলো সরকার সমর্থিত।

[৫] সৌদি একাডেমিক সালিহ আল-আসিমি বলেন, এসব অ্যাকাউন্ট তাদের দৃষ্টিতে যথেষ্ট দেশপ্রেম না দেখালে নিজেদের ক্ষমতা দেখায়। পুরোনো টুইট তুলে ধরে আক্রমণ চালাচ্ছে।

[৬] ওয়াশিংটন ভিত্তিক সৌদি বিশেষজ্ঞ আনাস সাকের বলেন, এ অ্যাকাউন্টগুলো সৌদি নেতৃত্বের জন্য মূল্যবান হিসেবে বিবেচিত হয়েছে। তবে তারা আরও ক্ষমতাশালী হয়ে ওঠায় সরকার এখন নিয়ন্ত্রণ করার ইচ্ছা পোষণ করতে চাইছে। পার্সটুডে

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত