প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] পাকিস্তানে বসেই রাম মন্দিরের পক্ষে সাফাই গাইলেন দানিশ কানেরিয়া

স্পোর্টস ডেস্ক : [২] অযোধ্যায় রাম মন্দিরের ভূমিপুজো ঐতিহাসিক। বিশ্বের সব প্রান্তের হিন্দুদের জন্য এটা গর্বের বিষয়। মুসলিম রাষ্ট্র পাকিস্তানে বসে সদর্পে ঘোষণা করলেন সে দেশের সাবেক স্পিনার দানিশ কানেরিয়া। যাকে কিনা স্রেফ ধর্মের জন্য অত্যাচারিত এবং হেনস্তার শিকার হতে হয়েছিল বলে বারবার অভিযোগ উঠেছে।

[৩] বুধবার অযোধ্যায় রামজন্মভূমিতে ঐতিহাসিক রাম মন্দিরের ভূমিপুজো সম্পন্ন করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। নিজের হাতে মন্দিরের শিলান্যাস করেছেন তিনি। সেই সঙ্গে অযোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণের পথ প্রশস্ত হয়েছে। যাতে স্বাভাবিকভাবেই খুশি পাকিস্তানের ‘গর্বিত হিন্দু’ কানেরিয়া। তিনি বলছেন,আজ বিশ্বের সব হিন্দুর জন্যই ঐতিহাসিক দিন। ভগবান রাম আমাদের আদর্শ। ঈশ্বর রামের সৌন্দর্য তার চরিত্রে, তার নামে নয়। অসত্যের প্রতি সত্যের বিজয়ের প্রতীক রাম। আজ বিশ্বজুড়ে খুশির আবহ।

[৪] এই মুহূর্তটা আমার জন্য চরম শান্তির। ইসলামিক প্রজাতন্ত্র পাকিস্তানে বসে দানিশ কানেরিয়া যেভাবে রাম মন্দির নির্মাণের পক্ষে সরব হলেন, তা অবাক করেছে ভারতীয় নেটিজেনদের। প্রাক্তন পাক ক্রিকেটারের সাহসিকতাকে কুর্নিশ জানাচ্ছে নেটদুনিয়া। সেই সঙ্গে মন্দির ইস্যুতে ভারতীয় ক্রিকেটারদের নীরবতা নিয়েও উঠছে প্রশ্ন।

[৫] উল্লেখ্য, পাকিস্তানে বরাবরই ধর্মীয় নিপীড়ণের শিকার হয়ে এসেছেন ‘সংখ্যালঘু’ হিন্দুরা। ব্যতিক্রম নন জাতীয় দলে খেলা প্রাক্তন স্পিনার দানিশ কানেরিয়াও। একাধিক বিস্ফোরক অভিযোগ করে প্রায় নিয়মিত শিরোনামে থাকছেন প্রাক্তন পাক স্পিনার। তার অভিযোগ, হিন্দু হওয়ায় পাক ক্রিকেটে প্রাপ্য সম্মান তিনি পাননি। এমনকী হেনস্তাও করা হয়েছে তাকে। কিন্তু কোনও কিছুর জন্যই নিজের ধর্মাচরণ থেকে বিরত থাকতে রাজি নন দানিশ। – সংবাদ প্রতিদিন

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত