প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বালু উত্তোলনের কাজে ব্যবহৃত সাড়ে ৬ হাজার ফুট অবৈধ পাইপ ভেঙ্গে দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত

আরিফুর রহমান: [২] বুধবার সকালে শহরের পুরানবাজার, সরকারি সুফিয়া কলেজ রোড, লঞ্চঘাট, পানিছত্র এলাকাসহ সদর উপজেলার কুলপদ্বী, ঝাউদি, শিমুলতলায় অভিযান চালায় ভ্রাম্যমাণ আদালত। অভিযানের নেতৃত্ব দেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক ও সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাইফুদ্দিন গিয়াস এবং সহকারী ভুমি কমিশনার হোসনে আরা তন্নী।

[৩] ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন আড়িয়াল খাঁ নদে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের ফলে গত ১লা আগস্ট শহর রক্ষা বাঁধের ৫৩ মিটার ধস হয়।

[৪] এ সময় কয়েকটি স্থাপনাসহ বসতভিটাও নদে বিলীন হয়ে যায়। হুমকির মুখে রয়েছে পুরো শহর। এতে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে শহরবাসীর মধ্যে। এলাকাবাসীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে এসব বালু উত্তোলনের অবৈধ ড্রেজার ও পাইপ সরিয়ে নিতে ৪ আগস্ট পর্যন্ত সময় বেঁধে দেয় জেলা প্রশাসন।

[৫] এ সময় বালু ব্যবসায়ীরা তাদের পাইপ সরিয়ে নেয়নি। পরবর্তীতে বুধবার দিনব্যাপী চালানো হয় অভিযান। অভিযানে ধ্বংস করা হয় সাড়ে ৬ হাজার ফুট ড্রেজারের পাইপ। ভ্রাম্যমাণ আদালতের উপস্থিতি টের পেয়ে ড্রেজার মেশিন নিয়ে পালিয়ে যায় বালু ব্যবসায়ীরা।

[৬] মাদারীপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাইফুদ্দিন গিয়াস বলেন, নদী থেকে কেউ অবৈধভাবে ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন করতে পারবে না। আমাদের এ অভিযান আগামীতে আরো অব্যহত থাকবে। সম্পাদনা: সাদেক আলী

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত