প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] শুল্কমুক্ত সুবিধায় বাংলাদেশ থেকে পাট আমদানি বাড়াতে চায় পাকিস্তান

শরীফ শাওন : [২] পাকিস্তানে বর্তমানে ছয়টি পাট কারখানা চালু আছে। উৎপাদিত পাটজাত পণ্য দিয়ে দেশের চাহিদা মিটিয়ে কয়েকটি দেশে রপ্তানি করে পাকিস্তান। বিশ্বে পাটের প্রধান উৎপাদক দেশ বাংলাদেশ এবং ভারত। দেশ দুটি থেকে পাট আমদানি করলেও বর্তমানে সিমান্ত উত্তেজনা নিয়ে ভারতের সঙ্গে বাণিজ্য সম্পর্ক স্থগিত হয়েছে। তবে পাটকলগুলোকে চালু রাখতে বাংলাদেশ থেকে পাট আমদানির কৌশল নির্ধারণ করছে ইমরান খানের সরকার। ডন

[৩] সম্প্রতি বিষয়টি নিয়ে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে আলপ করেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

[৪] ঢাকা ও ইসলামাবাদের মধ্যে মুক্ত-বাণিজ্য চুক্তির আওতায় হ্রাসকৃত শুল্কে পাট আমদানি করে পাকিস্তান। চলতি অর্থবছর বাজেটে পাট আমদানিতে অতিরিক্ত শুল্ক বাতিল করা হয়েছে। বিশ্ব বাজারে স্থানীয় পাটশিল্পের প্রতিযোগিতা সক্ষমতা বাড়াতেই সরকারের এ উদ্যোগ।

[৫] বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, মহামারির কারণে বাংলাদেশ পোশাক ও পাটখাতের নতুন সম্ভাব্য বাজার খুঁজছে। পাকিস্তানের শুল্ক মওকুফ সুবিধার বাংলাদেশ থেকে সেদেশে পাট রপ্তানি বাড়বে বলে আশা করা যায়। ইতোমধ্যে আগামী অক্টোবর পর্যন্ত পাটপণ্যের ক্রয়াদেশ এসেছে।

[৬] বাণিজ্য উপদেষ্টা আবদুল রাজ্জাক দাউদ বলেন, এক বছরের মধ্যে পাটপণ্য রফতানি দ্বিগুণ হয়ে গেছে। বিশেষ করে ইতালি, সুইজারল্যান্ড, গ্রিস, তরস্ক, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, ইরাক এবং মালয়েশিয়ার বাজারে প্রথমবারের মতো পাকিস্তানি পাটপণ্য প্রবেশ করায় রফতানিতে এই উল্লম্ফন। সম্পাদনা : খালিদ আহমেদ

সর্বাধিক পঠিত