প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] জেকেজির চেয়ারম্যান নয়, প্রধান কর্মকর্তা ছিলেন সাবরিনা : ডিবি

ইসমাঈল ইমু : [২] বুধবার ডিবি পুলিশের প্রধান অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার আব্দুল বাতেন বলেন, জেকেজিতে সাবরিনার চেয়ারম্যান পদবির সঙ্গে কোনো সংশ্লিষ্টতা আমরা পাইনি। তবে জেকেজির যে অর্গানোগ্রাম, তার প্রধান কর্মকর্তা হিসেবেই ছিলেন।

[৩] সাহেদের বিরুদ্ধে রাজধানীর উত্তরা-পশ্চিম থানায় করা প্রতারণার মামলার তদন্ত করছে র‌্যাব। তবে জিজ্ঞাসাবাদ থাকাকালীন সাহেদকে সঙ্গে নিয়ে উত্তরায় অভিযান চালিয়ে গাড়ি অস্ত্র ও মাদক জব্দ করা হয়। সেই মামলার তদন্ত করবে ডিবি পুলিশ।

[৪] আব্দুল বাতেন বলেন, অভিযানে যে অবৈধ অস্ত্র পেয়েছি। এখন পর্যন্ত সাহেদের অবৈধ অস্ত্রের ব্যবহার সম্পর্কে কোনো তথ্য পাইনি আমরা। তবে একটা মানুষ বৈধ অস্ত্রের পাশাপাশি অবৈধ অস্ত্র কেন রাখে, প্রমাণ গোপন করতে সেখানে অবৈধ অস্ত্র ব্যবহার করে থাকে। আমরা এই মামলাটির তদন্ত করছি।

[৫] তিনি আরো বলেন, সাহেদের প্রতিষ্ঠান রিজেন্ট হাসপাতাল করোনা পরীক্ষা না করে রিপোর্ট প্রদান, পজেটিভকে নেগেটিভ দেখানো আবার নেগেটিভকে পজেটিভ দেখিয়ে টাকা আদায়ে বিভিন্ন যে প্রতারণার অভিযোগ ছিল। সেগুলোর তদন্ত আমরা গুছিয়ে এনেছি। তবে আরও কিছুটা সময় লাগবে। এসব মানুষদের আলাদা করে ডেকে কথা বলতে। একটু সময় সাপেক্ষ ব্যাপার। সম্পাদনা : রায়হান রাজীব

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত