প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] নুরুল ইসলাম বাবুলের মৃত্যুতে রাজনীতিকদের শোক

বাশার নূরু: [৩] দেশের শীর্ষস্থানীয় ব্যবসায়ী, যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান ও বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম বাবুল কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

[৪] সোমবার বিকাল ৪টা ৫ মিনিটে ঢাকার এভার কেয়ার হাসপাতালে (সাবেক এ্যাপোলো হাসপাতাল) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। তার বয়স হয়েছিল ৭৪ বছর। স্ত্রী, এক ছেলে ও তিন মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন তিনি।

[৫] কোভিড পরীক্ষার ফল ‘পজিটিভ’আসায় গত ১৪ জুন এভারকেয়ারে ভর্তি হয়েছিলেন বাবুল। তার কিডনি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল। বাবুলের চিকিৎসায় ১০ সদস্যের একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছিল এভার কেয়ারে। এর বাইরে চীনের ৪ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক এবং সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালের দুই বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক টেলিকনফারেন্সের মাধ্যমে পরামর্শ দিয়েছেন। কিন্তু তাকে বাঁচানো যায়নি।

[৬] নুরুল ইসলাম বাবুলের মৃত্যুতে জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী, বিরোধীদলের নেতা বেগম রওশন এরশাদসহ বিভিন্ন রাজনীতিবিদ শোক প্রকাশ করেছেন।

[৭] যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম বাবুলের ইন্তেকালে বিএনপির মহাসচিব মিজা ফখরুল ইসলাম আলমগীর শোক জানিয়েছেন। বিএনপির চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইং সদস্য শায়রুল কবির খান শোকবিবৃতির কথা জানান।

[৮] শায়রুল কবির খান জানান, বাবুলের মৃত্যুতে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ডক্টর খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু শোক প্রকাশ করেছেন।

[৯] এছাড়া নূরুল ইসলামের মৃত্যুতে বিকল্পধারা বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট সাবেক রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক এ.কিউ.এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী এবং মহাসচিব মেজর (অব.) আবদুল মান্নান এমপি গভীর শোক প্রকাশ করে বলেছেন, দেশে শিল্প বিকাশের পাশাপাশি সংবাদপত্র এবং টেলিভিশন অঙ্গনে তার অবদান স্মরণীয় হয়ে থাকবে।

[১০] বিকল্পধারার এই দুই শীর্ষ নেতা এক যৌথ শোক বাণীতে বলেন, শিল্প এবং গণমাধ্যম বিকাশে নিবেদিতপ্রাণ নূরুল ইসলামের মৃত্যুর খবর জেনে আমরা গভীরভাবে মর্মাহত হয়েছি। দেশের অগ্রগতিতে তার অবদান অবশ্যই স্মরণীয় হয়ে থাকবে।

[১১] এদিকে অপর এক শোকবার্তায় জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের বলেন, ‘বাংলাদেশের শিল্প বিকাশে নুরুল ইসলামের কৃতিত্ব স্মরণীয় হয়ে থাকবে। তিনি ছিলেন একজন সফল মানুষ। তিনি শিল্প বিকাশের মাধ্যমে দেশের সম্বৃদ্ধি অর্জনে কৃতিত্ব রেখেছেন, পাশাপাশি লাখো মানুষের কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন।

[১২] জিএম কাদের আরও বলেন, ‘নুরুল ইসলাম দেশের গণমাধ্যমের বিকাশে অতুলনীয় অবদান রেখেছেন। দৈনিক যুগান্তর-এর মতো পাঠক নন্দিত পত্রিকা এবং বিশ্বমানের স্যাটেলাইট টিভি চ্যানেল যমুনা টেলিভিশন প্রতিষ্ঠা করে তার রুচি ও যোগ্যতার পরিচয় দিয়েছেন।’
জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদের সভাপতি হাসানুল হক ইনু এমপি ও সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার এমপি বলেন, ‘মহান মুক্তিযুদ্ধে বীরত্বপূর্ণ ভুমিকা, একজন সফল উদ্যোক্তা হিসাবে জাতীয় অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান, কর্মসংস্থান সৃষ্টি এবং দৈনিক যুগান্তর ও যমুনা টেলিভিশন চ্যানেলের মত দুইটি জনপ্রিয় গণমাধ্যম গড়ে তোলার জন্য নুরুল ইসলাম বাবুলকে দেশবাসী স্মরণে রাখবেন।’

[১৩] নুরুল ইসলাম বাবুলের মৃত্যুতে শোক ও তার পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, ‘তিনি তার ৪১টি প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে দেশের প্রায় ৫০ হাজার মানুষের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করেছিলেন। বাংলাদেশের শিল্প, বাণিজ্যের বিকাশে নুরুল ইসলাম বাবুল অবিস্মরণীয় অবদান রেখেছেন যা দেশের অর্থনৈতিক অগ্রগতিতে ব্যাপক ভূমিকা রেখেছে।’

[১৪] লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি-এলডিপি (একাংশ) সভাপতি আবদুল করিম আব্বাসী ও মহাসচিব শাহাদাত হোসেন সেলিম এক শোকবার্তায় দুঃখ প্রকাশ করেন। তারা বলেন, ‘গণমাধ্যম জগতে দৈনিক যুগান্তর, যমুনা টিভি প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে তিনি সফলতার পরিচয় দিয়েছেন। ব্যবসায়ীরা হিসাবেও তিনি সফলতার পরিচয় দিয়েছেন। তার এ চলে যাওয়া বড় অসময়। করোনার সংকট কাটিয়ে দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন ও আধুনিক বাংলাদেশ বিনির্মাণে তার মতো উদ্যোক্তার খুবই প্রয়োজন ছিল।’

[১৫] মঙ্গলবার জোহরের নামাজের পর যমুনা ফিউচার পার্ক মসজিদ প্রাঙ্গণে জানাজা শেষে বনানী কবরস্থানে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন করা হবে নুরুল ইসলাম বাবুলকে।

[১৬] প্রয়াত বাবুলের স্ত্রী সালমা ইসলাম একজন সংসদ সদস্য এবং মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সাবেক প্রতিমন্ত্রী। দৈনিক যুগান্তর ও যমুনা টেলিভিশন তিনি প্রতিষ্ঠা করেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত