প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] জার্মানির ছেলেদের ক্রিকেট টিমে ভারতের নারী খেলোয়াড়

এল আর বাদল : [২] জার্মানিতে ছেলেদের টি-টেন লিগ। সেই লিগেই এক টিমের উইকেটকিপার এক ভারতীয় মেয়ে। সদ্য পঁচিশে পা দেওয়া বেঙ্গালুরুর শারণ্যা সদারঙ্গানি এ ভাবেই ইতিহাস তৈরি করলেন জার্মান ক্রিকেটে।

[৩] শারণ্যা নয়, জার্মানির ক্রিকেট মাঠে শারু নামেই তাকে চেনেন সবাই। উত্তর জার্মানির কুমারফেল্ড শহর থেকে শারু বলছিলেন, আমি কুমারফেল্ডার স্পোর্টসভেরেন (কেএসভি) ক্লাবের কাছে কৃতজ্ঞ তারা আমাকে এই টি-টেন লিগে খেলার সুযোগ দিয়েছে। শুধু তাই নয়, এই লিগে তার টিমই চ্যাম্পিয়ন। ছ’ম্যাচে উইকেটের পিছনে আট শিকার শারণ্যার। টুর্নামেন্টে যা সবচেয়ে বেশি। এখানেই শেষ নয়, ডাক পেয়েছেন জার্মান ক্রিকেট সংস্থা থেকে। -ঢাকাটাইমস

[৪] বেঙ্গালুরু থেকে কী ভাবে শারণ্যা পৌঁছালেন জার্মানিতে? শারণ্যার কথায়,সাত বছর আগে ইংল্যান্ডে যাই পড়তে। পরে একই কারণে উত্তর জার্মানিতে। ইংল্যান্ডে থাকতেই জার্মান ক্রিকেট সংস্থার মোনিকা লাভডের সঙ্গে যোগাযোগ হয়েছিল। ফলে এক সপ্তাহের মধ্যেই আমি ক্লাব পেয়ে যাই জার্মানিতে। ফের ক্রিকেট খেলার সুযোগ পেয়ে খুব আনন্দ হয়েছিল।

[৫] শারুর সিভিতে তার আগেই জুড়ে গিয়েছে এসেক্সের নাম। ইংল্যান্ডে এসেক্স কাউন্টির মেয়েদের টিমে খেলেছিলেন বেশ কিছু ম্যাচ। সেখানে মিস্টলি ক্রিকেট ক্লাবেও খেলতেন।

[৬] ইংল্যান্ড ছাড়া ইউরোপের বেশির ভাগ ক্রিকেট টিমই আসলে তৈরি এশিয়ান ক্রিকেট খেলিয়ে দেশের প্লেয়ারদের নিয়ে। কেএসভি ক্লাবও তাই। শারণ্যার মন্তব্য, আমাদের কেএসভি ক্লাবেই বেশিরভাগ ক্রিকেটার ভারত, পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের। তবে আমাদের যুব টিমে স্থানীয় জার্মান প্লেয়ারও আছে অনেক। – ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত