প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] সাহেদ প্রতারণার টাকা রাখতেন নাসির, ইন্ডিয়ান বাবু ও স্ত্রী সাদিয়ার কাছে

ইসমাঈল ইমু : [২] নাসির বাড্ডা থানা যুবদলের সাবেক নেতা, আর ইন্ডিয়ান বাবু গোপালগঞ্জ জেলা বিএনপির এক নেতার শ্যালক। এই দুজন সাহেদের কোম্পানীর ডিএমডি।

[৩] স্ত্রী সাদিয়া ওই কোম্পানীর ভাইস প্রেসিডেন্ট। তিনি সাহেদের দেয়া টাকা থেকে মোটা অংকের টাকা আমেরিকায় তার এক আত্মীয়র কাছে পাচার করেছেন বলে জানা গেছে।

[৪] সূত্রটির দাবি, এমনিতেও নাসির বিভিন্ন সময় ভয়ভীতি দেখিয়ে সাহেদের কাছ থেকে টাকা নিতেন। ইন্ডিয়ান বাবু তাদের ঘনিষ্ঠ বন্ধু। তারা নির্মাণ সামগ্রী সরবরাহের নামে ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে মালামাল নিয়ে টাকা দিতেন না। পদ্মা সেতুতেও বালু সাপ্লাইয়ের নামে এক ব্যবসায়ীকে ধরাশায়ী করেন তারা। কেউ তাদের বিরুদ্ধে গেলে সন্ত্রাসী লেলিয়ে দিয়ে আবার কখনো নিজেদের টার্চার সেলে নির্যাতন করতেন।

[৫] করোনা টেস্টের জাল সনদ সরবরাহ এবং টেস্ট ও চিকিৎসায় অতিরিক্ত টাকা আদায়সহ বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগে ৭ জুলাই হাসপাতালটির উত্তরা শাখা এবং ৮ জুলাই মিরপুর শাখা সিলগালা করে দেয় র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

[৬] এরপর একে একে বেরিয়ে আসতে থাকে রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাহেদের নানা অপকর্মের ভয়াবহ সব তথ্য। মুখ খুলতে শুরু করেন ভুক্তভোগীরা।

[৭] সাহেদকে ভয়ঙ্কর প্রতারক উল্লেখ করে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে ২০১৬ সালে তৎকালীন পুলিশ মহাপরিদর্শককে চিঠি দিয়েছিলো স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। সম্পাদনা: সালেহ্ বিপ্লব

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত