প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] থ্রিসিক্সটিফাইভ ডে’ চলচ্চিত্রে অতিরিক্ত যৌনদৃশ্য সরানোর আবেদনে ৭০ হাজার স্বাক্ষর

রাশিদ রিয়াজ : [২] নেটফ্লিক্স বলে দিয়েছে তারা চলচ্চিত্রটি থেকে কোনো যৌন দৃশ্য বাদ দেবে না। এরআগে ব্রিটিশ সঙ্গীত শিল্পী এইমি এ্যানি ডাফি নেটফ্লিক্সের সিইও রিড হ্যাস্টিংস’এর কাছে লেখা এক চিঠিতে চলচ্চিত্রে এধরনের যৌন দৃশ্য নারী পাচারকারীদের উদ্বুদ্ধ করবে এবং নির্যাতনে অনেকে উৎসাহী হয়ে উঠবে বলে তা বাদ দেয়ার আবেদন জানান। নেটফ্লিক্সের পক্ষ থেকে বলা হয় তাদের দর্শকদের চলচ্চিত্রের দৃশ্য উপলব্ধি করার যথেষ্ট ক্ষমতা আছে।

[৩] এরপর চেঞ্জডটঅর্গ’এর পক্ষ থেকে আবেদন জানানো হয়েছে এধরনের দৃশ্য বাদ দেয়ার জন্যে। পোলিশ উত্তেজনাকর রোমান্টিক উপন্যাস কাহিনীর ওপর ভিত্তি করে চলচ্চিত্রটি নির্মিত হয়েছে এবং এর লেখিকা হচ্ছে ব্লাঙ্কা লিপিনস্কা। কাহিনীতে পোল্যান্ডের এক বিলাসবহুল হোটেলের সেলস ডিরিক্টর লরাকে অপহরণ করে সিসিলির মাফিয়া ডন ম্যাসিমো। এরপর লরাকে ৩৬৫ দিনের মধ্যে ভালবাসার শর্ত দিয়ে বসে ম্যাসিমো। এবং লরা সে চেষ্টার শর্তে মুক্তি পাওয়ার জন্যে চেষ্টা শুরু করলে তাদের মধ্যে একের পর এক যৌন দৃশ্য কাহিনী চলচ্চিত্রে দেখানো হয়েছে।

[৪] এসব দৃশ্য বাদ দেয়ার দাবিতে চেঞ্জঅর্গডটকমের আবেদনে হাজার হাজার স্বাক্ষরকারী বলছেন এধরনের চলচ্চিত্র ইতিমধ্যে যৌন নির্যাতনের শিকার নারীদের জন্যে বিদ্রুপ সৃষ্টি করছে এবং নারীর প্রতি সহিংসতাকে আরো উস্কে দিচ্ছে এবং উপহাস তৈরি করছে। চলচ্চিত্রে দৃশ্যায়িত বিনা সম্মতিতে যৌন সম্পর্ক, শিশু পাচার নিয়ে কথোপকথন সহ বিভিন্ন বিষয়ের সমালোচনা করেন তারা।

 

সর্বাধিক পঠিত