প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মঙ্গলগ্রহে বরফের বিশাল গর্ত (ভিডিও)

তন্নীমা আক্তার : মঙ্গল হল সূর্য থেকে দূরত্বের হিসাবে চতুর্থ তথা বুধের পরেই সৌরজগতের দ্বিতীয়-ক্ষুদ্রতম গ্রহ। এই গ্রহের বায়ুমণ্ডল ঘনত্বহীন এবং পৃষ্ঠভাগের বৈশিষ্ট্যগুলির মধ্যে চাঁদের মতো অভিঘাত খাদ যেমন দেখা যায়, তেমনই পৃথিবীর মতো উপত্যকা, মরুভূমি ও মেরুস্থ হিমছত্রও চোখে পড়ে।আর সেই মঙ্গল গ্রহে যাওয়ার জন্য গবেষকদের মধ্যে তোড়জোড় অনেক দিনের।এর আগে মঙ্গল গ্রহেপানির অস্তিত্ব পাওয়ার কথা জানালেও এবার বিজ্ঞানীরা জানান তারা সেখানে বরফের অস্থিত্ব দেখেছেন। খবরটি একটি ভিডিওকে ঘিরে।

ভিডিওটি প্রকাশ করেছে ইউরোপিয়ান স্পেস এজেন্সি। যা মঙ্গল গ্রহে প্রাণের সম্ভাবনাকে আরও উজ্জ্বল করছে। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, মঙ্গলগ্রহে একটি বরফের হ্রদ। লালগ্রহে ওই বরফ-হ্রদই ফের প্রাণের আশা জাগাচ্ছে। গবেষকদের আশা, জলের উত্স রয়েছে মঙ্গলগ্রহে।

ইএসএ’র মার্স এক্সপ্রেস এই ছবিটি তুলেছে। ৮২ কিমি প্রস্থ ও ১.৮ কিমি গভীর ওই গর্ত আসলে নন-পোলার বরফের বিরাট একটি রিজার্ভয়ার বা আধার। ইউরোপিয়ান স্পেস এজেন্সি জানাচ্ছে, এর আগের বিভিন্ন গবেষণায় মঙ্গলগ্রহের কোনও কোনও জায়গায় হঠাৎ জল প্রবাহের ইঙ্গিত পাওয়া গেলেও এই প্রথম সেখানে স্থায়ী জলাধারের অস্তিত্ব পাওয়ার কথা বলা হচ্ছে।

বাতাসের ঘনত্ব কম হওয়ার কারণে ঠান্ডায় জলাধারটি বরফের নীচে আটকা পড়েছে বলে মনে করছেন বিজ্ঞানীরা। মার্স এক্সপ্রেস নামে যে মহাকাশযান মঙ্গলের কক্ষপথে আবর্তন করছে, তার ভেতরে মারসিস নামে একটি রেডার মঙ্গলের ওই বরফ-আধারের ভিডিও ধারণ করে।

এর আগে পৃথিবীর মাটি যেমন বিভিন্ন স্তরে স্তরে থাকে, তেমনই মঙ্গলের বরফের মধ্যেও স্তর দেখার কথা জানিয়েছিলেন জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা। তখন বলা হচ্ছিল, মঙ্গলের কিছু কিছু জায়গায় বরফের ওপরে শুধুই ধুলো বা পাতলা মাটির স্তর রয়েছে। গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হলো, বরফ মাটির একদম নিচেই পাওয়া যাবে।

সর্বাধিক পঠিত