প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] কৃষি প্যাকেজ ঋণে কঠোর অবস্থানে কেন্দ্রীয় ব্যাংক

মো. আখতারুজ্জামান : [২] দেশে করোনাভাইরাস আশার শুরুতেই কৃষিতে উৎপাদন বাড়াতে প্রয়োজনীয় সহায়তা দেয়ার ঘোষণা দেন প্রধানমন্ত্রী। আর সেই কৃষি ঋণ বিতরণের শুরু থেকেই সংশ্লিষ্ট ব্যাংকগুলোর অনীহা লক্ষ্য করা গেছে। এ বিষয়ে এখন কঠোর অবস্থান নিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

[৩] কৃষকদের অনুক‚লে ৫ হাজার কোটি টাকার পুনঃঅর্থায়ন স্কিম ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এ খাতে ঋণ বিতরণে সুদ ভর্তুকি ছাড়াও নানা সুযোগ সুবিধাও দেয়া হচ্ছে।

[৪] প্যাকেজের আওতায় কৃষি ঋণ বিতরণ বাড়াতে গত মাসের শেষ সপ্তাহে নির্দিষ্ট সময় বেঁধে দেয়া হয়েছে। এরপরেও এই প্যাকেজের আওতায় চলতি মূলধন, শস্য ও ফসল খাতে কৃষিঋণ বিতরণ করছে না ব্যাংকগুলো। কৃষিতে ঋণ বিতরণে কোনরূপ অনীহা বা শৈথিল্য প্রদর্শন এবং সহযোগিতা না করার সুনির্দিষ্ট কোনো অভিযোগ পেলে দায়ী ব্যাংক বা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে কঠোর অবস্থানে যাচ্ছে ব্যাংক খাতের নিয়ন্ত্রণ সংস্থা।

[৫] ১ জুলাই বাণিজ্যিক ব্যাংকে পাঠানো এক চিঠিতে কেন্দ্রীয় ব্যাংক বলেছে, করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট আর্থিক সংকট মোকাবেলায় প্রণোদনা সুবিধার আওতায় কৃষকের অনুক‚লে ৫ হাজার কোটি টাকার পুনঃঅর্থায়ন স্কিমে বর্ণিত খাতসমূহ চলতি মূলধন। শস্য ও ফসল খাতে ৪ শতাংশ রেয়াতি সুদে কৃষিঋণ বিতরণে কোনো অনীহা প্রদর্শন এবং অসহযোগিতা করা জাতীয় স্বার্থের পরিপন্থী।

[৬] আরও বলা হয়, এ ধরনের জাতীয় সংকটকালে সরকারের পাশাপাশি ব্যাংকই সর্বোচ্চ সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেয়। তাছাড়া কৃষি খাতে পুনঃঅর্থায়ন তহবিল বরাদ্দসহ সুদ ভর্তুকি প্রদানেরও ব্যবস্থা করা হয়েছে। উপরন্তু কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তরফ থেকে সর্বোচ্চ পর্যায়ের নীতি-সহায়তা প্রদানের পদক্ষেপ গৃহীত হয়েছে।

[৭] জানা যায়, ব্যাংকগুলোর মাঝে কৃষিঋণ বিতরণে অনীহা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এ কারণেই সতর্কতামূলক এ চিঠি। প্রণোদনা প্যাকেজের ঋণ বিতরণে ব্যাংকগুলোর এ অনীহার কারণে দুই দফায় নির্দেশনা দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। সর্বশেষ গত বৃহস্পতিবার রাতে সার্কুলার জারি করে জুলাইয়ের মধ্যে বেশিরভাগ এবং আগস্টের মধ্যে প্যাকেজের পুরো টাকা বিতরণের জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত