প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] রাজশাহীতে নারী ও শিশু নির্যাতন পরিস্থিতি অবনতি

মঈন উদ্দীন : [২] লকডাউনেও একের পর এক নারী-শিশু নির্যাতনের ঘটনায় উদ্বেগ জানিয়েছে উন্নয়ন সংস্থা লেডিস অর্গানাইজেশন ফর সোসাল ওয়েলফেয়ার (লফস)। লফসের পক্ষ তেকে বলা হয়েছে, কিছুই যেন মানছে না নারী ও শিশু নির্যাতনকারীরা।

[৩] গত ১ মাসে রাজশাহীতে নারী ও শিশু নির্যাতন পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে বলেও জানিয়েছে সংস্থাটি। তাদের দেয়া তথ্যমতে, জুন মাসে নারী-শিশু হত্যা ২, হত্যা চেষ্টা ১, আত্মহত্যা ৫, আত্মহত্যা চেষ্টা ১, ধর্ষণ-যৌন নির্যাতন ও নির্যাতন ৯, পর্নোগ্রাফি ১, নিখোঁজ ও অপহরণ ৪ এবং এসিড নিক্ষেপের শিকার হয়েছেন ৩ জন নারী ও শিশু।

[৪] লফস এর পাঠানো প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রাজশাহী জেলায় দীর্ঘদিন ধরে নারী ও শিশুর উন্নয়নে কাজ করছে সংস্থাটি। মানবাধিকার সংগঠন হিসেবে লফস সংস্থার ডকুমেন্টেশন সেল থেকে রাজশাহীর প্রচারিত দৈনিক পত্রিকার সংবাদের ভিক্তিতে নিয়মিত নারী ও শিশু নির্যাতনের পরিস্থিতি প্রকাশ করে। লফস মনে করে অত্র অঞ্চলে নারী ও শিশু নির্যাতন পরিস্থিতি বিভিন্ন মাত্রায় অবনতি ঘটছে। যৌতুক ও পরকীয়ার কারণে অধিকাংশ নারী ও শিশু নির্যাতনের ঘটনা ঘটছে। অনেক ক্ষেত্রে বিদেশি কিছু টিভি সিরিয়াল পরকিয়াকে উৎসাহিত করছে। এছাড়া পারিবারিক কলহ ও প্রেম ঘটিত কারণে হত্যা-আত্মহত্যা ও অমানবিক নির্যাতনের মতো ঘটনা ঘটছে।

[৫] লফস এর নির্বাহী পরিচালক শাহানাজ পারভীন বলেন সংবাদপত্রে প্রকাশিত ঘটনার বাইরেও অনেক ঘটনা ঘটে যা প্রকাশিত হয় না বা কোন তথ্য জানা যায় না এমন বাস্তবতায়। বর্তমান করোনা পরিস্থিতিও নারী শিশু নির্যাতন মাত্রা যেন বাড়ছেই।তিনি বলেন অপরাধীদের শাস্তি নিশ্চিত করা না গেলে ক্রমশই অপরাধীরা উৎসাহিত হবে এবং অপরাধের মাত্রা বৃদ্ধি পাবে। সম্পাদনা: জেরিন আহমেদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত