প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] সরকারি বেসরকারি অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে চলবে পাটকল : পাটমন্ত্রী

মো. আখতারুজ্জামান: [৩] বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বলেন, আমরা সরকারি পাটকলগুলো সরকারি বেসরকারি অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে চালানর সিদ্ধান্ত নিয়েছি। রোববার এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ তথ্য জানান।

[৪] মন্ত্রী জানান, তাদের গোল্ডেন হ্যান্ডশেকের মাধ্যমে অবসর দেওয়া হবে। এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর সম্মতিও পাওয়া গেছে। আগামী সেপ্টেম্বরের মধ্যে তাদের পাওনা পরিশোধ করা হবে। তিনি আন্দোলনরত পাটল শ্রমিকদের ঘরে ফিরে যাওয়ারও অনুরোধ করেন।

[৫] দস্তগীর গাজী বলেছেন, সরকারি পাটকল বন্ধ করে দেওয়া হবে। পাটকলগুলো বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় পরিচালিত হবে। সরকারের পক্ষে বছরের পর বছর পাটকলের এত লোকসান বহন করা সম্ভব নয়। পাট মন্ত্রণালয়ের সচিব জানান, গত ৪৮ বছরে সরকারকে এই পাট খাতে ১০ হাজার ৬৭৪ কোটি টাকা লোকসান দিতে হয়েছে।

[৬] মন্ত্রী জানান, ২০১৪ সাল হতে অবসরপ্রাপ্ত ৮,৯৫৪ জন শ্রমিকের প্রাপ্য সব বকেয়া এবং বর্তমানে কর্মরত ২৪,৮৮৬ জন শ্রমিকের প্রাপ্য বকেয়া পাওনা রয়েছে। এসব শ্রমিকদের মজুরি, পিএফ জমা, গ্র্যাচুইটি এবং সে সাথে গ্র্যাচুইটির সর্বোচ্চ ২৭ শতাংশ হারে অবসায়ন সুবিধা একসাথে শতভাগ পরিশোধ করা হবে। এ জন্য সরকারি বাজেট হতে প্রায় ৫ হাজার কোটি টাকা প্রদান করা হবে।

[৭] বিজেএমসি সূত্রে জানা যায়, বিজেএমসির অধীন ২৬টি পাটকলের মধ্যে বর্তমানে চালু আছে ২৫টি। এর মধ্যে ২২টি পুরোদমে পাটকল ও ৩টি ননজুট ইন্ডাস্ট্রি। একটি পাটকল বন্ধ রয়েছে। এসব পাটকলে বর্তমানে স্থায়ী শ্রমিক আছেন ২৪ হাজার ৮৮৬ জন। এছাড়া তালিকাভুক্ত বদলি ও দৈনিকভিত্তিক শ্রমিকের সংখ্যা প্রায় ২৬ হাজার।

সর্বাধিক পঠিত