প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বিশ্বজুড়েই বৈষম্যের শিকার হচ্ছেন নাস্তিক ওমানবতাবাদীরা: হিউম্যানিস্ট ইন্টারন্যাশনাল

লিহান লিমা: [২] হিউম্যানিস্ট ইন্টারন্যাশনাল ‘হিউম্যানিস্ট এট রিক্স: অ্যাকশন রিপোর্ট ২০২০’ নামে বৃহস্পতিবার এই গবেষণা প্রতিবেদন প্রকাশ করে। এই প্রতিবেদনে ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলংকা, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, ফিলিপাইন, কলম্বিয়া ও নাইজেরিয়াসহ মোট ৮টি দেশের ৭৬জনের সাক্ষাৎকার নেয়া হয়। দ্য গার্ডিয়ান

[৩] প্রতিবেদনে বলা হয়, শুধুমাত্র সংখ্যাগরিষ্ঠের ধর্মীয় বিশ্বাসকে প্রত্যাখান করায়, মানবাধিকারের চর্চা করায়, গণতান্ত্রিক আদর্শ ও বিশ্লেষণধর্মী চিন্তার কারণে নাস্তিক ও মানবতাবাদীরা মারধর, হত্যা ও নির্যাতনের শিকার হন।

[৪] গত মাসে নাইজেরিয়ার হিউম্যানিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি মোবারক বেলাকে ব্লাসফেমি বা ধর্ম অবমাননার জন্য মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়। একজন ইসলামি চিন্তাবিদের সন্তান বেলা ধর্মের অনেক কুসংস্কার ও রীতি-নীতির সমালোচনা করতেন।

[৫] প্রতিবেদনে বলা হয়, মানবতাবাদী, নাস্তিক এবং ধর্মে-অবিশ্বাসীদের ওপর ধর্ম অবমাননা এবং ধর্মত্যাগের অভিযোগ আনা হয়।

[৬] মালয়েশিয়ার এক অধিকারকর্মী বলেন, মানবতাবাদী এবং ধর্মে অবিশ্বাসীরা প্রতিনিয়তই মুসলিমদের আক্রমণের শিকার হন।

[৭] পাকিস্তানে ধর্ম অবমাননা আইন খুবই সহিংস এবং মারাত্মক। একজন বলেন, এখানে মানবতাবাদী হতে হলে আপনাকে অবশ্যই সবকিছু হারানোর সাহস রাখতে হবে।

[৮] হিউম্যানিস্ট ইন্টারন্যাশনালের প্রধান নির্বাহী গ্যারি ম্যাকলিল্যান্ড বলেন, ব্লাসফেমি বা ধর্ম অবমাননা আইন অবশ্যই বাতিল করা প্রয়োজন। সম্পাদনা: ইকবাল খান

সর্বাধিক পঠিত