প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ফেনীতে ডাকাতির সময় নৈশপ্রহরীকে হত্যা, বন্দুকযুদ্ধে নিহত-৩

শাহজালাল ভূঞা, ফেনী প্রতিনিধি : [২] ফেনীর দাগনভূঞা উপজেলার বেকেরবাজারে ডাকাতিকালে দুর্বৃত্তদের হামলায় আবদুল মান্নান (৪৫) ওরফে মনু নামে এক নৈশপ্রহরী খুন হয়েছেন। এঘটনায় স্থানীয়দের সহযোগিতায় ৪ জনকে আটক করে ‍পুলিশ। এদের মধ্যে তিনজন পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে মারা যায়।

[৩] বৃহস্পতিবার (২৫ জুন) ভোরে দাগনভূঁঞার ফেনী-নোয়াখালী আঞ্চলিক মহাসড়কের পাশে অবস্থিত মাতুভূঁঞা ইউনিয়নে বেকের বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

[৪] স্থানীয়রা জানান, দুর্বৃত্তরা ফেনী-মাইজদী মহাসড়কসংলগ্ন বাজারের শরিয়ত এন্ড ব্রাদার্সের তালা ভেঙ্গে ট্রাকে মালামাল তুলছিল। নৈশপ্রহরী মনু ও রফিক ঘটনাটি দেখে চিৎকার করে বাধা দেওয়ায় বাজারের নৈশপ্রহরী আবদুল মান্নান ডাকাতরা তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। এরপর বাজারের মসজিদের মাইকে ডাকাতির বিষয়টি জানানো হলে ব্যবসায়ীরা ডাকাতদের ঘিরে ফেলে। খবর পেয়ে পুলিশ উপস্থিত হলে ডাকাতদের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধ শুরু হয়।

[৫] এতে ঘটনাস্থলেই এক ডাকাত নিহত হন। গুলিবিদ্ধ হন তিন জন। দাগনভূঁঞা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পথে একজনের মৃত্যু হয়। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ফেনী ২৫০ শয্যার জেনারেল হাসপাতালে নেওয়ার সময় আরও একজন মারা যান।

নিহতরা হলেন- দুলাল মাতব্বর (৪৫), বাবুল মোল্লা (৪০) ও মো. বিদ্যুৎ (৩২)। গুলিবিদ্ধ আরেক ডাকাত সদস্য দুলাল পেদাকে (৪২) পুলিশি হেফাজতে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

[৬] দাগনভূঁঞা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আসলাম সিকদার তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত তিনি বলেন, ‘ঘটনাস্থল থেকে একটি দেশীয় তৈরি পাইপগান, দুটি ছোরা, ডাকাতির সরঞ্জাম উদ্ধার ও ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত ট্রাক জব্দ করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ ফেনী জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। সম্পাদনা : হ্যাপি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত