প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বিজ্ঞাপনের বকেয়া বিল পরিশোধ না করলে সংবাদপত্রশিল্প বাঁচবে না : ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন

ভূঁইয়া আশিক রহমান :[২] সংকটে প্রধানমন্ত্রীর সুনজর জরুরি,  সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানসমূহ গণমাধ্যমের সহযোগিতায় এগিয়ে আসা উচিত। এই ইতিহাসবিদ আরও বলেন, কিছুদিন ধরে সংবাদপত্রে যেসব প্রতিবেদন পড়ছি, দেখা যাচ্ছে পত্রিকার বকেয়া বিজ্ঞাপন বিল পরিশোধের ক্ষেত্রে নানাবিধ জটিলতা সৃষ্টি হয়েছে, এটা নিরসন দরকার। সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানসমূহের উচিত সংবাদপত্রের বকেয়া বিজ্ঞাপন বিল দ্রুত পরিশোধ করা।

[৩] প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণতন্ত্র ও গণমাধ্যমবান্ধব মানুষ। সংবাদকর্মীদের সঙ্গে তার সুসম্পর্ক রয়েছে। তার শাসনামলেই গণমাধ্যমের ব্যাপক প্রসার ঘটেছে। ফলে তিনি গণমাধ্যমের বর্তমান সংকটে সহযোগিতায় এগিয়ে আসবেন, সে বিশ^াস আমার আছে। তবে প্রয়োজন তাকে স্মরণ করিয়ে দেওয়া। [৬] কোভিড-১৯ মোকাবেলায় প্রধানমন্ত্রী সাহসিকতার সঙ্গে এগোচ্ছেন। গণমাধ্যম তার এই দৃঢ়তার প্রশংসা করছে। মনে রাখতে হবে, গণমাধ্যম ভালো না থাকলে, সরকারের পক্ষে একা করোনা সংকট মোকাবেলা কঠিন হবে।

[৪] করোনাকালে মানুষের জন্য সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন তথ্য। আর এই তথ্য সংবাদমাধ্যম সংগ্রহ করে মানুষকে জানায়। সরকারিভাবে যে তথ্য প্রতিদিন হাজির করা হয়, তাতে মানুষের আস্থা নেই। তথ্যের অবাধ প্রবাহ নিশ্চিত করতে হলে সংবাদপত্র ও টেলিভিশন লাগবেই। সরকারের উচিত গণমাধ্যমকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করা। এক্ষেত্রে কোনো ধরনের গাফলতি বা চেষ্টার কমতি থাকা ঠিক নয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত