প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] করোনাকালের সুনাম নিয়েই বদলে যেতে চায় পুলিশ

ডেস্ক রিপোর্ট : [২] অনেকেই মনে করছেন করোনার হাত ধরেই মানবিক পুলিশ বাহিনীর নতুন যাত্রা শুরু হলো। করোনাকালে পুলিশ তার দায়িত্বের বাইরে গিয়ে এমন সব কাজে নিজেদের সম্পৃক্ত করেছে, যা অতীতে খুব একটা দেখা যায়নি। এটা করতে গিয়ে এ বাহিনীর সদস্যরা নিজেরা যেমন করোনা সংক্রমণের ঝুঁকিতে পড়েছেন, তেমনি পুলিশি সেবায় নতুন মাত্রায় যুক্ত হয়েছে। শুধু করোনাকালে নয়, পুলিশ মানবিক আচরণের যে নতুন ইতিহাস সূচনা করেছে তা আগামীতেও ধরে রাখতে চান বাহিনীর নীতি নির্ধারকরা। এ নিয়ে পাঁচটি বার্তা পুলিশ প্রধান ড. বেনজীর আহমেদ মাঠ পর্যায়ের সব সদস্যের মাঝে পৌঁছে দিতে চান। এরই মধ্যে মাঠ পর্যায়ের পুলিশ সদস্যদের মাঝে এই বার্তা পৌঁছাতে ভিডিও কনফারেন্স শুরু করেছেন পুলিশ প্রধান। সর্বশেষ গতকাল রোববার পুলিশের প্রায় সব ইউনিটের কর্মকর্তা ও পুলিশ সুপারদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে বক্তব্য রাখেন বেনজীর আহমেদ। সেখানে পুলিশ বাহিনী নিয়ে তার আগামীর পরিকল্পনা ও স্বপ্নের কথা তুলে ধরেন তিনি। এ সময় মাঠের পুলিশ কর্মকর্তারা এই স্বপ্ন বাস্তবায়নে আইজিপিকে সব ধরনের সহযোগিতার প্রতিশ্রুতি দেন। একাধিক দায়িত্বশীল সূত্র থেকে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

[৩] সংশ্নিষ্ট সূত্র জানায়, আইজিপির এই নির্দেশনা পরবর্তী সময়ে লিখিতভাবে সব ইউনিটে পাঠানো হবে। মাঠের পুলিশকে দেওয়া মহাপরিদর্শকের পাঁচ বার্তা হলো- দুর্নীতিমুক্ত পুলিশ বাহিনী গড়ে তোলা, যে কোনো নির্মম নির্যাতন ও নিপীড়ন থেকে পুলিশ সদস্যদের দূরে থাকা, মাদকমুক্ত বাংলাদেশ গড়ায় পুলিশের জোরালো ভূমিকা রাখা, বিট পুলিশিংয়ের মধ্য দিয়ে পুলিশি সেবা জনগণের কাছে পৌঁছানো ও পুলিশের কল্যাণ নিশ্চিত করা।

[৪] পাঁচ বার্তা মাঠের পুলিশ সদস্যদের কাছে পৌঁছানোর কারণ কী- এমন প্রশ্নে আইজিপি ড. বেনজীর আহমেদ গতকাল বলেন, রূপকল্প ২০২১ ও ২০৪১ বাস্তবায়নের সরকারের নির্বাচনী ইশতেহারে পুলিশ এ সময় কোন অবস্থায় দেখতে চায় সেটা বলা আছে। আমরা আধুনিক ও মানবিক পুলিশ বাহিনী গড়ে তুলতে চাই। যাদের কাজ হবে জনগণের সেবা নিশ্চিত করা। সততার সঙ্গে যারা পেশাগত দায়িত্ব পালন করবে।

[৫] পুলিশ মহাপরিদর্শক আরও বলেন, করোনাকালে এ দেশের মানুষ মানবিক ও কল্যাণমূলক পুলিশের একটি বহিঃপ্রকাশ দেখেছে। আমরা এ ধরনের পুলিশিং আগামীতে ধরে রাখতে চাই। আচরণে পুলিশকে এমন জায়গায় দেখতে চাই যারা অনেকের কাছে অনুকরণীয় হবে। এখন আমরা পাঁচটি বিষয় সামনে রেখে মাঠের পুলিশকে বার্তা দিচ্ছি। এটা বাস্তবায়ন হলে নতুন লক্ষ্য ঠিক করা হবে। থানাকে কীভাবে শতভাগ সেবামুখী করা যায় সেটি নিয়েও অনেক পরিকল্পনা আছে।সমকাল

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত