প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] মাদক , সন্ত্রাস ও দুর্নীতিমুক্ত সমাজ গঠনে মানবিক পুলিশ হওয়া জরুরি, বললেন ডিআইজি- হারুন

আল আমীন, ময়মনসিংহ : [২] বর্তমান পরিস্থিতিতে আইন শৃংখলা ও পুলিশ সদস্যদের পেশাদারিত্বের বিষয়ে ময়মনসিংহ রেঞ্জের সম্মানিত ডিআইজি ব্যারিষ্টার মো.হারুন অর রশিদ বিপিএম এর সভাপতিত্বে ময়মনসিংহ জেলার পুলিশ লাইন্সে নবনির্মিত ড্রিলসেডে উর্ধ্বতন পুলিশ অফিসারদের সাথে রোববার এক বিশেষ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

[৩] সভার শুরুতেই প্রধান অতিথি চলমান কোভিড-১৯ সংকটময় মূহূর্তে ময়মনসিংহ জেলা পুলিশের মানবিক কার্যক্রমে ভূয়সী প্রশংসা করেন। তিনি জানান দেশের এই সংকটময় মূহুর্তে বাংলাদেশ পুলিশের প্রাত্যাহিক ও মানবিক কার্যক্রম প্রান্তিক জনগোষ্ঠীসহ সারা বিশ্বে প্রশংসিত হয়েছে। পুলিশের এই মানবিক কার্যক্রম ধারাবাহিকভাবে প্রদানের মাধ্যমে জনগণের আস্থা ধরে রাখতে হবে।

[৪] ডি আই জি আরও বলেন, আমাদের দেশে উন্নয়নের সবচেয়ে বড় অন্তরায় হলো মাদক। আমাদের যুব সমাজকে এই মাদকের ছোবল থেকে রক্ষা করতে না পারলে দেশের কাঙ্খিত উন্নয়ন সম্ভব নয়। কারণ আমাদের দেশের মোট জনসংখ্যার ৭০% হলো ৩০ হতে ৩৫ বছর বয়সী যুবক। এদেরকে মাদকের হাত থেকে রক্ষা করতে না পারলে, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক ঘোষিত ভিশন-২০২১ এবং ২০৪১ বাস্তবায়ন করা সম্ভব হবে না। ফলে মাদক নির্মূলের প্রতি বিশেষ গুরত্বারোপ করে, তিনি সকল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের মাদক নির্মূলে কঠোর নির্দেশনা প্রদান করেন। আগামী ১ (এক) মাসের মধ্যে স্ব-স্ব এলাকার মাদক ব্যবসায়ীদের সঠিক তালিকা প্রস্তুত করে তাদের সহযোগীসহ মূল হোতাদের চিহ্নিত করে চিরনী অভিযান পরিচালনা করার জন্য বিশেষ নির্দেশ প্রদান করেছেন।

[৫] তাছাড়া তিনি সকল থানার ওসিদেরকে সন্ধ্যার পরে স্কুল, কলেজ ও ভার্সিটি পড়ুয়া কোন ছাত্র যাতে বিনা প্রয়োজনে বাহিরে অবস্থান না করে, সেই বিষয়টি নিশ্চিত করণের বিশেষ পরামর্শ দেন। মাদক নির্মূলে বিপদগামী শিক্ষার্থী ও যুবকদেরকে সঠিক পথে ফিরিয়ে আনতে হবে এবং মাদক নির্মূলে স্থানীয় ওসিদের বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হবে। অফিসার-ইনচার্জগণদের ঐকান্তিক প্রচেষ্টার মাধ্যমেই কেবল সম্ভব সমূলে মাদক নির্মূল করা।

[৬] চলমান পরিস্থিতিতে সকল পুলিশ সদস্যদের শতভাগ স্বাস্থ্যবিধি মেনে দায়িত্ব পালনের নির্দেশনা প্রদান করেন। পুলিশ সদস্যদের পর্যাপ্ত স্বাস্থ্য সামগ্রী সরবরাহ করা হচ্ছে বলে তিনি জানান। তাছাড়া প্রত্যেক সদস্যের কল্যাণের প্রতি দৃষ্টি রাখতে সকল ইউনিট ইনচার্জদের নির্দেশনা প্রদান করেন।

[৭] এছাড়াও তিনি পুলিশী সেবা মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেওয়ার জন্য বিট পুলিশিং এর প্রস্তুুতিমূলক কার্যক্রম শুরু করতে সকল থানার অফিসার-ইনচার্জদেরকে বিশেষ নির্দেশ প্রদান করেন। সম্পাদনা: জেরিন আহমেদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত