প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] কোভিড-১৯ জয় করে বাড়ি ফিরলেন শতবর্ষী নারী খবিরুন্নেসা

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি: [২] মৃত আলতাফ ভূইয়ার স্ত্রী ১০১ বছর বয়সী খবিরুন্নেসা বেগমের বাড়ি গোপালগঞ্জের চন্দ্রদিঘলীয়া গ্রামে। গত ১৯ মে কোভিড-১৯ পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ আসার পর ৩০ মে ও ১ জুন দুবারের পরীক্ষায় কোভিড-১৯ নেগেটিভ আসে তার। বর্তমানে তিনি ঢাকায় মেয়ে সেলিনা জাকিরের বাসায় কোয়ারেন্টাইনে আছেন।

[৩] পরিবার সূত্রে জানা যায়,বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত খবিরুন্নেসার স্বামী ২০ বছর আগে ও বড় ছেলে দুই বছর আগে মারা গেছেন। বাকি ৬ সন্তানের মধ্যে তিন ছেলে যুক্তরাষ্ট্রে এবং তিন মেয়ে ঢাকায় থাকেন । দেশে অবস্থানরত মেয়েদের কাছেই থাকেন তিনি। উন্নত চিকিৎসার জন্য মে মাসে শুরুর দিকে ঢাকার উত্তরায় মেয়ের বাসায় যান খবিরুন্নেসা।

[৪] সুত্র জানায়, ১৩ মে তার মেয়ে সেলিনা জাকির (৪৮) ও নাতি তামিমের কোভিড-১৯ পজিটিভ আসে। তাদের ভর্তি করা হয় উত্তরার রিজেন্ট হাসপাতালে। কোভিড-১৯ রোগীদের সংস্পর্শে থাকায় সেখান থেকেই শরীরে করোনাভাইরাসের উপসর্গ দেখা দেয় খবিরুন্নেসার। ১৫ মে বাসা থেকে নমুনা সংগ্রহ করে রিজেন্ট হাসপাতালে পরীক্ষার জন্য দিলে ১৯ মে খবিরুন্নেসার কোভিড-১৯ রিপোর্ট পজিটিভ আসে। পরে রিজেন্ট হাসপাতালেই পরিবারের অন্য সদস্যদের সঙ্গে তাকেও ভর্তি করা হয়। এসময় তার ছোট মেয়ে শাহানাজ (৪২)-এরও কোভিড-১৯ পজিটিভ আসে। এরপর তাকেও ওই হাসপাতালের আইসোলেশনে রেখে চিকিৎসা দেয়া হয়।

[৫] খবিরুন্নেসার মেয়ে সেলিনা জাকির জানান, ‘আমরা পরিবারের চার জনই কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়েছিলাম। আমার মাকে হৃদরোগের কারণে রিং পরাতে হয়েছিল। একবার পিত্তথলিতে পাথর হওয়ায় অপারেশনের টেবিলেও নিতে হয়েছিল। এছাড়া তার আছে স্কিন ক্যানসার। এত কিছুর পরেও করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করে তিনি ফিরে এসেছেন।’

[৬] এদিকে খবিরুন্নেসাকে বাংলাদেশের হাজার হাজার কোভিড-১৯ রোগীর জন্য অনুপ্রেরণা বলে উল্লেখ করেছেন উত্তরার রিজেন্ট হাসপাতালের চিকিৎসকরা।

[৭] গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা. অসিত কুমার ম‌ল্লিক বলেন, একশ বছরের বৃদ্ধ নারী করোনা জয় করে ফিরলো। এতে বোঝা গেলো করোনায় যে কোনও বয়সের লোক আক্রান্ত হলে ভয়ের কিছু নেই। সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে।

সর্বাধিক পঠিত