প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বর্ণবাদবিরোধী আন্দোলন মার্কিন সমসাময়িক সমাজব্যবস্থাকে বড়সড় ঝাঁকুনি দিয়েছে : হুমায়ুন কবির

ভূঁইয়া আশিক রহমান : [২] সাবেক এ রাষ্ট্রদূত আরও বলেন, মূল কারণ অনুসন্ধান করে সংকটের সুরাহা না করলে রাজপথ অথবা নভেম্বরের ভোটে তার প্রতিফলন ঘটবে|

[৩] ট্রাম্প প্রশাসন যদি আর হার্ডলাইনে না যায়, তাহলে ধীরে ধীরে ক্ষোভ প্রশমিত হবে।

[৪] এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপে তিনি বলেন, গণতন্ত্র ও মানবাধিকারের প্রতি মার্কিন জনগণের সম্মান আছে। কোথাও মৌলিক অধিকারের ব্যত্যয় ঘটলে যে তারা সেটা পছন্দ করেন না, তা তো দেখছিই।

[৫] মার্কিন প্রশাসনিক ব্যবস্থায় ঘাটতি আছে, ফলে মানবাধিকারের লঙ্ঘন হচ্ছে। এ কারণেই আন্দোলন-সংগ্রামের পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। জনতা মাঠে নেমেছে।

[৬] দেশটির ৬৮ শতাংশ মানুষ শে^তাঙ্গ হলেও তাদের বেশির ভাগই যুক্তিবাদী ও উদারনৈতিক চিন্তাভাবনা করেন। শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করতে চান, কিন্তু সম্প্রতিককালে শে^তাঙ্গদের একটা অংশের বাড়বাড়ন্ত, কৃষ্ণাঙ্গদের সঙ্গে পুলিশের অমানবিক আচরণ পছন্দ করেনি জনগণ।

[৭] দেশটিতে অর্থনৈতিক সংকট তৈরি হয়েছে, কোভিডের কারণে একধরনের সামাজিক অস্থিরতাও চলছে। সবকিছু মিলিয়েই আমেরিকার বর্তমান সংকট।

[৮] দেশটির তরুণেরা ট্রাম্প প্রশাসনের নেতিবাচক কর্মকাণ্ড বিগত ৩ বছর ধরে সমর্থন করছে না। ফলে নভেম্বরের নির্বাচনে ডেমোক্র্যাটরা আগের চেয়ে অনেক বেশি সমর্থন পাবে। সাম্প্রতিকালের ঘটনাসমূহে ডেমোক্র্যাটরা আরও বেশি উজ্জীবিত হবে। নির্বাচনে যাতে জয়ী হতে পারেন, তাদের কর্মীবাহিনী আরও বেশি সক্রিয় হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত