প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

এ বি এম কামরুল হাসান : যারা জুম ভিডিও নেটওয়ার্কিং করতে পারে তারা অনলাইন লেনদেন করতে পারবে না, এটা মানা যায় না

বিদেশে থাকি। পারিবারিক প্রয়োজনে প্রতিমাসেই দেশে কিছু লেনদেন করা লাগে। অনলাইনে করি। এখানেও সব বিল বা লেনদেন অনলাইনেই করি। কখনো কোনো সমস্যা হয়নি। কোভিড-১৯ এর প্রতিষেধকের কোনো খবর নাই। মনে হচ্ছে, এই ভাইরাস এর সাথে দীর্ঘকাল কাটাতে হবে। এখন তো আর আমাদের অনলাইন নির্ভরতা ছাড়া গতি নেই। বিটিআরসি এর তথ্যমতে (জুন ২০১৮), দেশে ইন্টারনেট ব্যবহার করে প্রায় ০৯ কোটি মানুষ। যা প্রতি বছর প্রায় ৫০ শতাংশ হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে। এ তো বড়ই আশা জাগানিয়া খবর। তাহলে আমরা কেন অনলাইন লেনদেন করছি না? অনেককেই দেখেছি স্মার্টফোন ব্যবহার করে, ইন্টারনেট আছে, ইমেইল আছে, ফেইসবুক চালায়। আজকাল আবার জুম্ ভিডিওতেও তাদের দেখি। তারপরও ৬০ ভাগ বেশি বাস ভাড়া দিয়ে, স্বাস্থ্যবিধির সাথে মস্করা করে, কোভিড-১৯ এর সাথে যুদ্ধ ঘোষণা করে ব্যাংকের লম্বা লাইন এ দাঁড়াচ্ছে। যারা জুম বা ফেইসবুক ভিডিও নেটওয়ার্কিং করতে পারে তারা অনলাইন লেনদেন করতে পারবে না, এটা আমি মানতে রাজি নই। কাউন্টার লেনদেনে গ্রাহককে নিরুৎসাহিত করতে ব্যাংকগুলো একটা কাউন্টার ফি আরোপ করতে পারে। আসুন, আমরা এই বৈশ্বিক দুর্যোগের সময় অনলাইন নির্ভরতা বাড়িয়ে দেই। সময় বাঁচাই। জীবন বাঁচাই। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলি। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখি। যথাসম্ভব ঘরে থাকি। যানবাহনের ভিড়, ব্যাংকের ভিড় এড়িয়ে চলি। লেখকঃ প্রবাসী চিকিৎসক

সর্বাধিক পঠিত