প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] করোনাভাইরাস লকডাউনে বর্জ্যমুক্ত ১৪০০ কিলোমিটারের যমুনা নদী

ইকবাল খান: [২] ২৫ বছরে পাঁচ হাজার কোটি রুপি ব্যয়ে যে আবর্জনা অপসারণ করতে পারে সি ভারত সরকার।

[৩] লকডাউন চলাকালে শিল্প কারখানাগুলো বন্ধ ও বাণিজ্যিক তৎপরতা স্তিমিত হওয়ার সুযোগে ভারতের সাতটি রাজ্যের মধ্য দিয়ে যাওয়া নদীটি নিজেকে পরিষ্কার করে নিয়েছে। সূত্র: এনডিটিভি।

[৪] গত ৩০ বছর ধরে যমুনা নদী নিয়ে গবেষণাকারী ভারতের বন্যপ্রাণী ইনস্টিটিউটের সংরক্ষণ কর্মকর্তা ড. রাজীব চৌহান বলেন, ২০০০ সাল থেকে যমুনা অ্যাকশন প্লানের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট আছি আমি, নদীটিকে কখনো এতোটা পরিষ্কার দেখিনি। লকডাউন সবগুলো নদীর ওপর যে প্রভাব ফেলেছে তাতে বিস্মিত আমি।

[৫] শুধু হরিয়ানার পানিপথ থেকে দিল্লি পর্যন্ত তিন শতাধিক শিল্প এলাকার বর্জ্য নদীটিতে ফেলা হয়, এতে যমুনা ভারতের সবচেয়ে দূষিত নদী হয়ে দাঁড়িয়েছে। দিল্লি, আগ্রা, মথুরা- এই তিনটি শহর নদীটির ৮০ শতাংশ দূষণের জন্য দায়ী।

[৬] দিল্লির দূষণ নিয়ন্ত্রণ কমিটি দেখেছে, লকডাউনের আগের সময়ের তুলনায় দিল্লির কাছে নদীটি এখন প্রায় ৩৩ শতাংশ পরিষ্কার হয়েছে, আর মথুরার কাছে পানি আরও স্বচ্ছ হয়েছে।

[৭] দিল্লির জলাশয়, বিশেষ করে যমুনা নদী পুনরুদ্ধারের উদ্দেশ্যে কর্মরত পরিবেশ সংরক্ষণবিদ দিওয়ান সিং বলেন, নিজস্ব জৈবিক ক্ষমতা ব্যবহার করে নদীটি নিজেকে পরিষ্কার করেছে।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত