প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] যৌন নিপীড়নকারী জেফ্রি এপস্টেইনের ১৩০ ছেলেমেয়ের দাবি তারা তার ৬৩৫ মিলিয়ন ডলার এস্টেটের অংশীদার!

রাশিদ রিয়াজ : [২] ব্রিটিশ কোটিপতি ও যৌননিপীড়নকারী হিসেবে অভিযুক্ত জেফ্রি এপস্টেইন ছিলেন অবিবাহিত এবং তার কোনো ছেলেমেয়ে আছে তা তার জীবদ্দশায় জানা যায়নি। গত আগস্টে তিনি ম্যানহাটান কারাগারে আত্মহত্যা করেন। ডেইলি মেইল

[৩] এপস্টেইেনের মৃত্যুর পর মোরস জিনোলজিক্যালের সার্ভিস নামে একটি একটি ডিএনএ কোম্পানি এপস্টাইনহিরস ডটকম নামে ওয়েবসাইট খুলে জানতে চান কেউ আছেন কি না এমন যারা তার উত্তরাধিকার হিসেবে মনে করেন বা প্রমাণ করতে পারবেন। ওয়েবসাইটটির সঙ্গে ৩৮৩ জন যোগাযোগ করে। এদের মধ্যে ১৩০ জন ছেলেমেয়ে নিশ্চিত যে তাদের বাবা এপস্টেইন।

[৪] এসব ছেলেমেয়ে এপস্টেইনের বিলাসবহুল ৭৫ একরের এস্টেট, ম্যানহ্যাটান ম্যানসন সহ অন্যান্য স্থাবর ও অস্থাবর সম্পত্তির মালিকানা দাবি করছে। এপস্টেইনের ছোট ভাই মার্ক বেঁচে আছেন এবং আইনগতভাবে তিনিও এসব সম্পদের অংশীদার। এ বছরের শুরুতে তার কিছু সম্পদ বিক্রির পর ৫৭৭ মিলিয়ন ডলার আয় হয়।

[৫] মৃত্যুর পর এপস্টেইনের সম্পদ একটি ট্রাস্টের কাছে দেয়া হয়েছে। ডিএনএ প্রতিষ্ঠান মোরসের প্রতিষ্ঠাতা হার্ভে মোরস বলেন একাধিক নারীর সঙ্গে যৌন সম্পর্ক স্থাপনের কারণে জেফ্রির কোনো সন্তান জন্মের যৌক্তিক সম্ভাবনা রয়েছে।

[৬] এ্যাসেট ম্যানেজার হিসেবে পেশাগত জীবন যাপন করলেও জেফ্রির সঙ্গে অভিজাত শ্রেণীর ওঠাবসা ও ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক ছিল। ২০০৮ সালে তার বিরুদ্ধে এক নাবালিকাকে জোরপূর্বক পতিতাবৃত্তিতে নিয়োজিত করার অভিযোগ ওঠে। বিষয়টি আদালতে গড়ালে তার ১৩ মাসের জেল হয়।

[৭] এরপর জেফ্রির ৫টি গাড়ি বিক্রি করা হয়। এর মধ্যে ১৯ হাজার ডলারের বেন্টলি, ১৩ লাখ ৩ হাজার ২শ ডলারের একটি মার্সিডিজ, তিনটি শেভ্রোলেট ছিল। তার ব্যাংক এ্যাকাউন্ট থেকে ৫ লাখ ডলার জব্দ করা হয়। এছাড়া নিউ মেক্সিকোতে তার আরেকটি বাড়ি আছে।

[৮] দুই ডজন নারী জেফ্রির বিরুদ্ধে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে মামলা দায়ের করেছেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত