প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ধর্ষণের অভিযোগে হাইতির ফুটবল ফেডারেশনের প্রধানকে ৩ মাসের জন্য বরখাস্ত করলো ফিফা

স্পোর্টস ডেস্ক : [২] জাতীয় অনুশীলন সেন্টারে টিনএজ মেয়েদের ধর্ষণের অভিযোগে হাইতির ফুটবল ফেডারেশনের (এফএইচএফ) প্রধানকে ৯০ দিনের জন্য বরখাস্ত করেছে আন্তর্জাতিক ফুটবল সংস্থা ফিফা। এই সময়ে অভিযোগটি তদন্ত করে দেখা হবে।

[৩] হাইতির ফুটবল প্রধান ৭৩ বছর বয়সী ইয়েভস জিন-বার্টের বিরুদ্ধে অভিযোগ গত পাঁচ বছরে পোর্ট-অব প্রিন্সে বেশ কয়েকজন কম বয়সী নারী ফুটবলারকে ধর্ষণ করেছেন তিনি। যদিও বারবার এমন অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছেন জিন-বার্ট।

[৪] সোমবার ফিফা এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ফিফার কোড অব এথিকসের ৮৪ ও ৮৫ ধারা অনুযায়ী স্বাধীন তদন্ত কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী এফএইচএফ এর প্রধানকে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে সব ধরনের ফুটবলীয় কার্যক্রম থেকে ৯০ দিনের জন্য অস্থায়ীভাবে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। দ্রæতই এ নিষেধাজ্ঞা কার্যকরী হবে।

[৫] গত মাসে ধর্ষণের খবরটি প্রকাশিত হওয়ার পর অভিযোগটি নিয়ে তরেই মধ্যে তদন্তকাজ শুরু করেছে হাইতিয়ান পুলিশ। এ ব্যাপারে ফেডারেশনের কয়েকজন কর্মকর্তার বক্তব্যও গ্রহণ করেছে আদালত। বিষয়টি নিয়ে বেশ কয়েকজন তরুণীর বক্তব্যসহ একটি প্রতিবেদন ছাপে গার্ডিয়ান। তাতে বলা হয়, গত কয়েক বছরে জিন-বার্ট কম বয়সী অনেক খেলোয়াড়কে ধর্ষণ করেছেন জিন-বার্ট।

[৬] এসব তরুণীরা জানায়, তাদেরকে এ ব্যাপারে চুপ থাকার জন্য চাপ প্রয়োগ করা হয়। গার্ডিয়ানের ওই প্রতিবেদনে নাম প্রকাশ না করা শর্তে একজন ভুক্তভোগী জানান, জিন-বার্টের নৃশংসতার শিকার হয়ে কমপক্ষে দুজন খেলোয়াড়ের গর্ভপাতও করাতে হয়েছে। -ফিফা ওয়েবসাইট

[৭] জিন-বার্টকে বরখাস্ত করাটা ফিফার একটি ভালো সিদ্ধান্ত বলে জানিয়েছেন ন্যাশনাল নেটওয়ার্ক ফর দ্য ডিফেন্স অব হিউম্যান রাইটসের প্রতিনিধি মারি-রসি অগাস্টে ডুকেনা।

[৮] জিন-বার্ট দুই দশক ধরে হাইতির ফুটবল ফেডারেশনের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। সবশেষ ফেব্রুয়ারিতে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ষষ্ঠবারের মতো নির্বাচিত হয়েছেন তিনি। তবে ধর্ষণের বিষয়ে তার কোনো মন্তব্য নিতে পারেনি এএফপি।

সর্বাধিক পঠিত