প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে আওয়ামী লীগের ঈদ উদযাপন

ডেস্ক রিপোর্ট : [২] ভার্চুয়াল মাধ্যমে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের নেতারা। করোনাভাইরাসের সংক্রমণজনিত কারণে ঘরে বসে ঈদ পালনের অংশ হিসেবে সরকারের মন্ত্রিসভার সদস্য ও ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ নেতারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করে ডিজিটাল পদ্ধতিতে দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানান। এতে তারা স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঘরে বসে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে ঈদ উদযাপনের আহ্বান জানান।

[৩] এদিকে সোমবার (২৫ মে) ঈদের দিন সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হোয়াটসঅ্যাপে তার ধানমন্ডির দলীয় কার্যালয় উপস্থিত নেতাকর্মীদের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। দলের দফতর সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী বিপ্লব বড়ুয়া বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সন্ধ্যার দিকে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করে তার মোবাইলে ভিডিও কল করেন। এসময় প্রধানমন্ত্রী ধানমন্ডির কার্যালয় উপস্থিত সবার সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। সবার খোঁজ-খবর নেন। সবাইকে সাবধানে থাকতে বলেন। বাইরে বেশিক্ষণ না থেকে বাসায় অবস্থানের পরামর্শ দেন। ধানমন্ডি কার্যালয় অবস্থানরত দলের নেতা ও কার্যালয়ের কর্মচারীরা এসময় প্রধানমন্ত্রীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানান বলে তিনি উল্লেখ করেন।

[৪] দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়ে আওয়ামী লীগের ভ্যারিফাইড ফেসবুক পেজ থেকে একটি ভিডিও ক্লিপ আপলোড করা হয়েছে। তিন মিনিট ১৬ সেকেন্ডের এ ভিডিও ক্লিপে আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং দলের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরসহ ৩০ জনেরও বেশি নেতা ও সরকারের মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীর ঈদ শুভেচ্ছা প্রচার করা হয়েছে। এতে মূলত প্রধানমন্ত্রী সোমবার ঈদুল ফিতর উপলক্ষে জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন সেই অংশটি যুক্ত করা হয়েছে। এছাড়া অন্যান্য নেতা-মন্ত্রীদের শুভেচ্ছা ভিডিওবার্তায় যুক্ত করা হয়েছে।

[৫] ‘ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা’ শিরোনামের এই ভিডিও ক্লিপে নেতারা ঈদের শুভেচ্ছা জানানোর পাশাপাশি সবাইকে ঘরে বসে ঈদ পালনের আহ্বান জানান। এতে করোনাভাইরাস পরিস্থিতি কথা তুলে ধরে বলা হয়েছে, ভিন্ন পরিস্থিতিতে ভিন্ন প্রেক্ষাপটে আমাদের মধ্যে ঈদ এসেছে। যে আঁধার আমাদের চারপাশে ঘিরে রয়েছে শিগগিরই তা কেটে যাবে। যতক্ষণ পর্যন্ত প্রতিষেধক বা ভ্যাকসিন আবিষ্কার না হয় ততদিন এই ভাইরাসের সঙ্গে আমাদের বসবাস করতে হবে। ভিডিও ক্লিপে ডিজিটাল বাংলাদেশে প্রযুক্তির মাধ্যমে এবার ঈদ উৎসবের পালনের কথা বলা হয়।

[৬] এ বিষয়ে জানতে চাইলে দফতর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে ডিজিটাল পদ্ধতিতে ঈদের শুভেচ্ছা জানানোর জন্য আগেই দল ও সহযোগী সংগঠনের নেতা ও মন্ত্রিসভার সদস্যদের ভিডিও ক্লিপে বক্তব্য পাঠাতে বলা হয়েছিল। অনেকেই রেকর্ড করে পাঠিয়েছেন। দলের গবেষণা সেল সিআরআই সেগুলো দিয়ে এই ভিডিও ক্লিপটি তৈরি করেছে।

[৭] এবারের ঈদ কেমন কেটেছে জানতে চাইলে বিপ্লব বড়ুয়া বলেন, করোনা সংক্রমণ নিয়ে সবার মধ্যে একটা উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা কাজ করছে। অনেকে শঙ্কিত। দলের সদস্যরা আক্রান্ত হচ্ছে। বন্ধুবান্ধব আক্রান্ত হচ্ছে। সব মিলিয়ে বলা যায় ঈদে একটা বিষণ্ণতা ছিল। প্রতিবছর ঈদের দিন গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। দলের নেতাকর্মীসহ সর্বস্তরের মানুষ অংশ নেন। ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করেন। একটি মিলনমেলায় পরিণত হতো। এবার এই কর্মসূচি থেকে আমরা বঞ্চিত হয়েছি।

[৮] এ বিষয়ে জানতে চাইলে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মুহাম্মদ ফারুক খান জানান, ঈদের দিন তিনি ঢাকার বাসায় পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কাটিয়েছেন। প্রযুক্তির মাধ্যমে নির্বাচনি এলাকার মানুষকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। অনেকের সঙ্গে তিনি ভিডিও কল করে কথা বলেছেন। কাউকে কাউকে টেলিফোন করেছেন। ক্ষুদেবার্তা (এসএমএস) দিয়ে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। সবাইকে নিরাপদে থাকতে, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে এবং পরিবারের সঙ্গে ঈদ পালনের আহ্বান জানিয়েছেন।

[৯] নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী মিন্টু রোডের সরকারি বাসভবনে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিত পরিসরে আয়োজিত ঈদের জামাতে অংশ নেন। এরপর সারাদিন তিনি বাসাতেই কাটান। এসময় তিনি টেলিফোন, ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপসহ বিভিন্ন সোশ্যাল মাধ্যমে এলাকার জনগণসহ দেশ-বিদেশের বিভিন্ন মানুষের সঙ্গে কথা বলেন। এক প্রতিক্রিয়ায় তিনি বলেন, ঈদের দিন পরিবারের সঙ্গে কাটিয়েছেন। তবে প্রযুক্তি ব্যবহার করে ডিজিটাল পদ্ধতিতে মানুষের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেছেন। দেশের বাইরে বসবাসরত অনেক বন্ধুবান্ধব শুভানুধ্যায়ীদের সঙ্গে কথা হয়েছে। বাংলাদেশসহ বিশ্ব পরিস্থিতি নিয়ে তারা উদ্বেগের কথা জানিয়েছে।

[১০] আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন বলেন, রাজনীতিবিদ হিসেবে নিজের পরিবারের বাইরে আমাদের বড় একটি পরিবার আছে সেটা হলো রাজনৈতিক পরিবার। তাদের সঙ্গে আমরা সবসময় ঈদ করি। সাধারণ মানুষের ভালোবাসায় আমরা ঈদ করি। তাদেরকে বাদ দিয়ে বাড়িতে আমাদের কাটাতে হয়েছে। কাজেই কিভাবে বলবো এবারের আনন্দে কাটিয়েছি?

[১১] তিনি জানান, টেলিফোনসহ সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে অনেকের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেছেন ঠিকই। কিন্তু ঈদের দিন কোলাকুলি, একসঙ্গে মিষ্টান্ন খাওয়া, ঘোরাফেরা করার মধ্যে যে আনন্দ, ভার্চুয়াল মাধ্যমে তো সেই আনন্দটা পাওয়া যায়নি। একসঙ্গে থাকার যে হৃদ্যতা মোবাইলে কথা বলে সেটা হয় না।

[১২] এছাড়া বেশ কয়েকজন নেতা তাদের নিজের ফেসবুক পেজে ভিডিও ক্লিপ প্রকাশ করে ঈদের শুভেচ্ছা জানান। কেউ কেউ ফেসবুক লাইভে এসেও শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। বাংলা ট্রিবিউন , যুগান্তর

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত