প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভয় কেটে গেলে মৃত্যুর সংখ্যা অনেক কমে আসবে

মো. গোলাম সারোয়ার : আশার কথা হলো, বাংলাদেশে এখনো রোগী খুব বেশি বাড়েনি। টেস্ট বাড়ছে বলে শনাক্তের সংখ্যা বাড়ছে। আমরা যখন এক হাজার টেস্ট করতাম তখনো দেড়শ হতো। এখন পৌনে দশ হাজার করেছি বলে ষোলশ পার হয়েছে। বাস্তবতা হলো, দেশে রোগী আছে লাখে লাখে আগে থেকেই।

 

টেস্ট যতো বাড়বে শনাক্তের সংখ্যা ততো বাড়বে। আর শনাক্তের ঘোষণা যতো বাড়বে, পরিস্থিতি ততো স্বাভাবিক হয়ে আসবে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে আসলে মৃত্যৃর সংখ্যা আরো কমে আসবে। এই সময়ে ঘোষিত রোগীর বেশিরভাগ ক্ষেত্রে মৃত্যুর কারণ অতি আতঙ্কে এবং সামাজিক দুর্ব্যবহারের কারণে হার্টএ্যাটাকে। এর দায় আমাদের সবার। আমরা মানুষকে আশার কথা না বলে ভয় দেখিয়ে যাচ্ছি।

 

আশা করি ভয় কেটে গেলে মৃত্যুর সংখ্যাও কমে আসবে।আজ পর্যন্ত আমাদের ঘোষিত রোগী ২৩, ৮৭০ জন। যেকোনো রোগের ক্ষেত্রে এতো রোগী হলে ক্রিটিক্যাল রোগী এক দুইশ থাকতে পারে, অতি বয়স্ক এবং অতি দুর্বল থাকতে পারেন। তার উপর যদি আমরা তাদের অনবরত আতঙ্কে রাখি, তবে অতি আতঙ্কে অনেকে হার্টএ্যটাক করতে পারেন। তাই আমরা আরো দায়িত্বশীল হই। আক্রান্তদের সাহস দিই, আর সামাজিকভাবে স্বাভাবিক ব্যবহার করি। দেখবেন, সব স্বাভাবিক হয়ে আসছে। বাংলাদেশে করোনার কারণে ইনশাআল্লাহ ম্যাচাকার হবে না। ফেসবুক থেকে

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত