প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ঢাকায় টাকার জাদুঘরের কথা জানেন না অনেকেই [২] গত ১ বছরে নতুন সংগ্রহ নেই

দেবদুলাল মুন্না: [২] ১৮ মে সোমবার আন্তর্জাতিক জাদুঘর দিবস। বাংলাদেশেও দিবসটি নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে পালিত হওয়ার কথা থাকলেও এবার করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে হচ্ছে না কোন অনুষ্ঠান। জাদুঘরের কিউরেটর মো. রেজাউল করিম রোববার বলেন, এ জাদুঘর সম্পর্কে প্রচার হয়েছে কম। উদ্যোগের অভাবে নতুন মুদ্রা যুক্ত হয়নি।

[৩] ২০১৩ সালে ৫ অক্টোবর কেন্দ্রীয় ব্যাংকের উদ্যোগে এ জাদুঘরের উদ্বোধন করা হয়েছে।

[৪] টাকা জাদুঘরের প্রবেশপথের দেয়ালেই রয়েছে সেই টাকা গাছ। যেখানে রয়েছে প্রাচীনকালে সব মুদ্রা থেকে শুরু করে বর্তমানে প্রচলিত মুদ্রা ও কাগুজে নোটের রেপ্লিকা। যাকে বলা হয় ‘টাকার গাছ’।

[৫] কিউরেটর মো. রেজাউল করিম জানান, জাদুঘরের প্রদর্শিত মুদ্রা ও কাগুজে নোটের বড় অংশই শখের সংগ্রাহকদের কাছ থেকে উপহার হিসেবে পাওয়া।উপহারদাতাদের মধ্য আছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও।

[৬] খ্রিষ্টপূর্ব প্রথম শতক থেকে দ্বিতীয় শতকে ব্যবহৃত কৃষাণ মুদ্রা, সপ্তম শতক থেকে নবম শতকে ব্যবহৃত হরিকেল রূপার মুদ্রা, দিল্লির সুলতানি
আমলের মুদ্রা, বাংলার স্বাধীন সুলতানদের রাজত্বের সময় ব্যবহৃত মুদ্রাসহ ব্রিটিশ আমল, পাকিস্তান আমল হয়ে বাংলাদেশি মুদ্রা রাখা হয়েছে ।

[৭] জাদুঘরে রয়েছে ডিজিটাল টাচ স্ক্রিনের মাধ্যমে মুদ্রা ও নোট সম্পর্কিত বিভিন্ন তথ্য ও ইতিহাস জানার সুযোগও।

[৮] মিরপুর ২ নম্বরে অবস্থিত বাংলাদেশ ব্যাংক ট্রেনিং একাডেমির দ্বিতীয় তলায় রয়েছে এ জাদুঘর।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত