প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

অকারণে মিথ্যা কথা বলা একটা বড় মাপের মনের অসুখ

সুতপা বন্দ্যোপাধ্যায় : সোশ্যাল মিডিয়াতে কোনো মিথ্যা বলারই দরকার পড়ে না। জীবনের যে অংশ দেখানোর ইচ্ছা নেই সেটা না দেখালেই চলে। কোনো এক আশ্চর্য কারণে মানুষ এতো অপ্রয়োজনীয় মিথ্যা বলে। এমন না যা সেই মিথ্যাগুলো খুব ভয়াবহ বা অন্যের ক্ষতি করে ফেলবে, মিথ্যাগুলো স্রেফ নিজেকে বিশেষ কেউ দেখানোর জন্য বলা হয়।

 

মনে করেন অন্যের করা রান্না নিজের বলে চালানো, বয়স ৫ বছর কমিয়ে বলা, নিজের লাইফস্টাইল বানিয়ে বলা, আর্থিক অবস্থা নিয়ে গল্প বানানো (বাড়িয়েও বলে, কমিয়েও বলে), লেখাপড়া নিয়ে বানিয়ে বলা ইত্যাদি। এমন না দুনিয়ার সবাইকে সব কথা বলে বেড়াতে হবে।
অতি ব্যক্তিগত প্রশ্ন যারা করে তাদের তো সহবত নেই বলাই বাহুল্য। সে সব প্রশ্নের উত্তর না দেওয়ার স্বাধীনতা সবার আছে। কিন্তু আগ বাড়িয়ে মিথ্যা বলা খুব বিপজ্জনক একটা অভ্যাস।

 

আর এই অভ্যাস সবচেয়ে বেশি দেখেছি যারা সারাদিন ‘আমিয়ামিয়ামিআমি’ করে লেখে। নিজেকে ফলাও করে দেখাতে গিয়ে বেহুঁশ হয়ে কথা বানাতে থাকে। কোনো লাভ হয় না আসলে, কারও কিছু এসে যায়ও না। মাঝখানে মিথ্যাবাদী মানুষটি একেকবার একেক কথা লিখে আর সেগুলো ডিফেন্ড করতে গিয়ে আরও জালে জড়িয়ে যায়। একদম খামাকা, কোনো মানে আছে। ফেসবুক থেকে

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত