প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] “আপনারা সব সময় বাংলার সমালোচনা কেন করেন”, মোদিকে প্রশ্ন মমতার

ইয়াসিন আরাফাত : [২] ভারতের প্রধানমন্ত্রী মোদির সামনেই সোমবার কেন্দ্রের বিরুদ্ধে রাজনীতির অভিযোগ তুলেন দেশটির পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। এদিন লকডাউনের ভবিষ্যত কি হবে তা নির্ধারন করতে ভার্চুয়াল বৈঠকে বসেন নরেন্দ্র মোদি আর অঙ্গরাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরা। স্থানীয় সময় বিকেল ৩টা থেকে শুরু হওয়া ওই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন দেশটির কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের মুখ্যমন্ত্রীরাও। এনডি টিভি, কোলকাতা ২৪, এই সময়

[৩] বৈঠকেই কেন্দ্রের বিরুদ্ধে রাজনীতি করার অভিযোগ তুলেন পশ্চিম বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা। তিনি বলেন, “এটা রাজনীতি করার সময় নয়। কেউ আমাদের মতামত জানতে চাইছে না। যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামো ভাঙবেন না।” এমনকি, চিত্রনাট্যের অপর ভর করে পরিকল্পনা রুপায়ন করছে কেন্দ্র।

[৪] জানা গিয়েছে, ধাপে ধাপে লকডাউন তোলা, পরিযায়ী শ্রমিক সমস্যা ও অর্থনীতিকে ছন্দে ফেরানো সংক্রান্ত একাধিক ইস্যুতে আলোচনা হয়েছে এই বৈঠকে। দেশব্যাপী লকডাউন লাগু হওয়ার পর এটা পঞ্চম বৈঠক।

[৫] এদিন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী যথেষ্ট আক্রমণাত্মক ছিলেন। প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে তার প্রশ্ন ছিলো, “আমরা যখন আপনাদের সহযোগিতা করছি তাহলে আমাদের উপর সর্বদা আক্রমণ কেন? কেন সবসময় বেঙ্গল, বেঙ্গল, বেঙ্গল? কেন এত সমালোচনা?” ইতিমধ্যে গত মাসে কেন্দ্রীয় পরিদর্শক দলের বাংলা সফর ঘিরে উত্তপ্ত হয়েছিল কেন্দ্র-রাজ্যের পরিস্থিতি। একইভাবে পরিযায়ী শ্রমিকদের রাজ্যে ফেরানো নিয়েও দ্বন্দ চরমে।

[৬] এদিকে, গত সপ্তাহে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী দেশের ৩টি হটস্পট রাজ্যের মধ্যে পশ্চিমবঙ্গকে তালিকাভুক্ত করেছিল। মোট ১০টি রাজ্যের সংক্রমণ কেন্দ্রকে উদ্বেগে রেখেছে। এমনটাই দাবি করেছিলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধন। তার প্রস্তাব ছিল, প্রয়োজনে সেই ১০ টি রাজ্যে কেন্দ্রীয় চিকিৎসক দল পাঠাতে পারে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। রাজ্যগুলোর মেডিক্যাল সেবার সঙ্গে হাত মিলিয়ে কাজ করবেন তারা।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত