প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] করোনা রোগী সম্পর্কে সতর্ক করতে চশমা আবিষ্কার করল চীন

ইয়াসিন আরফাত : [২] করোনা রোগীর হাত থেকে সতর্ক করতে দারুণ এক চশমা আবিষ্কার করেছে চীন। এই চশমার মাধ্যমে নিরাপদ দূরত্ব রক্ষা করেই মানুষের তাপমাত্রা মাপা সম্ভব হবে। এর ফলে থার্মাল ডিটেক্টর বা আলাদা যন্ত্রের মাধ্যমে তাপমাত্রা পরিমাপের দরকার হবে না আর। ডেইলি মেইল, দ্যা হিন্দুস, কোলকাতা ২৪

[৩] চীনের বিজ্ঞানীরা বলছে, করোনাভাইরাস সংক্রমণের অন্যতম উপসর্গ শরীরের তাপমাত্রা। বিস্তার ঠেকাতে, তাই তাপমাত্রা পরিমাপের ব্যাপারে সতর্ক থাকা খুব জরুরী। কিন্তু ব্যক্তি পর্যায়ে থার্মোমিটার বা থার্মাল ডিটেক্টর ব্যবহার সম্ভব নয় সবার পক্ষে। আর এই সংকটে এই চশমা দারুণ কাজ দেবে বলে মনে করা হচ্ছে। এই চশমা চোখে থাকলে স্বয়ংক্রিয়ভাবেই ভেসে উঠবে আশপাশের মানুষের শরীরের তাপমাত্রা। ক্যামেরা আর ইনফ্রারেড সেন্সরের মাধ্যমে ১০ ফুট দূরত্ব পর্যন্ত মানুষের তাপমাত্রা পরিমাপে সক্ষম টি-ওয়ান নামের চশমাটি। এক সঙ্গে একাধিক ব্যক্তির তাপমাত্রা মাপতেও সক্ষম এটি।

[৪] চশমাটির প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান রকিড এর ভাইস প্রেসিডেন্ট জিয়াং ওয়েনজি জানিয়েছেন, চশমাটিতে ইনফ্রারেড থার্মোমিটারের সঙ্গে একটি কেবল যোগ করা হয়েছে। যা চশমায় সরাসরি তথ্য পাঠায়। এবং কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তায় দ্রুত সেই ডাটা শনাক্ত হয়ে ভেসে উঠে। চশমা ব্যবহারে সামনের ২ থেকে ৩ মিটার দূরত্বের যে কোনও মানুষের তাপমাত্রা সহজেই জানা যাবে। আর্টিফিসিয়াল ইনটেলিজ্যান্স এবং গেমিং প্রযুক্তি ঘটিয়ে এ চশমা তৈরি করেছে চিনের সংস্থা রকিড।

[৫] সঠিকভাবে তাপমাত্রা যাচাই, সহজে বহন করার সুবিধার পাশাপাশি এটি শারীরিক দূরত্ব নিশ্চিতের বাড়তি সুরক্ষা দিচ্ছে ব্যবহারকারীদের। যে কারণে, টি-ওয়ান চশমা জনপ্রিয়তা পেতে সময় লাগেনি। বাজারে আসামাত্রই ১ হাজার পিস চশমা সংগ্রহ করেছে বিভিন্ন সংস্থা।

সর্বাধিক পঠিত