প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] সুয়ারেজ লাইনের নোংরা পানি মাধ্যমেও ছড়াতে পারে করোনা ভাইরাস

মাজহারুল ইসলাম : [২] এতদিন ধারণা করা হচ্ছিল শুধু মানুষের মাধ্যমেই এই ভাইরাস ছড়ায়। তবে এবার স্পেনে দেখা গেল আঁতকে ওঠার মতোই এক ঘটনা। দেশটির বিজ্ঞানীরা সুয়ারেজ লাইনের বর্জ্য পানিতে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি খুঁজে পেয়েছেন। এর ফলে এই ভারইরাসটি আরো বিপজ্জনকভাবে ছড়াতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এর আগে ফ্রান্সের প্যারিসে সাপ্লাইয়ের পানিতে করোনা ভাইরাসের সন্ধান মিলেছিল।

[৩] মেডরিক্সিভ ওয়েবসাইটে প্রকাশিত একটি গবেষণায়পত্রে বলা হয়েছে, স্পেনের এপিডেমিওলজিস্টরা আবিষ্কার করেছেন যে, মানুষের মাঝে প্রথমবারের মতো রোগের লক্ষণগুলি প্রকাশের আগে থেকেই করোন ভাইরাস নর্দমার পানিতে উপস্থিত ছিল। ফলে এটি সুয়ারেজ লাইন পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের মাধ্যমে প্রাথমিকভাবে ছড়িয়ে থাকতে পারে বলে অনুমান করা হচ্ছে।

[৪] গবেষকরা বলছেন, গবেষণার ফলাফলগুলি দৃঢ়ভাবে প্রমাণ করে ভাইরাসটি পূর্বের বিশ্বাসের চেয়ে আরো আগেই মনুষ্য সম্প্রদায়কে সংক্রমণ করে চলেছিল। বর্জ্য পানির বিশ্লেষণটি কভিড-১৯ এপিডেমিওলজিক্যাল নজরদারির জন্য একটি সংবেদনশীল এবং সাশ্রয়ী কৌশল।

[৫] উহানের করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাবের প্রথম সপ্তাহগুলোতে চিকিৎসক এবং জীববিজ্ঞানীরা আবিষ্কার করেছিলেন যে, মানুষের জৈবিক বর্জ্যে প্রচুর পরিমাণে ভাইরাস রয়েছে। পরে বিজ্ঞানীরা ভাইরাসটির এই বৈশিষ্ট্যটি সিঙ্গাপুরের কয়েকটি সংক্রমণের ক্ষেত্রে সংযুক্ত করে কিছু রেস্টরুমে অনুচিত বায়ুচলাচল সিস্টেমকে দায়ী করে।

[৬] ভ্যালেন্সিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের এপিডেমিওলজিস্ট এবং এগ্রোকেমিক্যালস অ্যান্ড ফুড টেকনোলজিস ইনস্টিটিউট (ভ্যালেন্সিয়া, স্পেন) এর সহকর্মীরা এই বছরের ফেব্রুয়ারি থেকে এপ্রিলের মধ্যে ভ্যালেন্সিয়ায় সংগৃহীত ভাইরাসটির নমুনা অধ্যয়ন করে শহরের নর্দমার মধ্যে ভাইরাসগুলোর চিহ্ন খুঁজে পাওয়া যায় কিনা এবং সেখানে কতটা দ্রুত ছড়াতে পারে সেই সম্ভাবনা নির্ধারণ করার চেষ্টা করেছিলেন।

[৭] গবেষকদের মতে, ভ্যালেন্সিয়া এবং আশেপাশের অঞ্চলগুলো-সহ পুরো আইবেরিয়ান উপদ্বীপে করোনাভাইরাসের কোন প্রাদুর্ভাব ছিল না। ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারির শেষ দিকে ভ্যালেন্সিয়ায় প্রথম করোনা রোগী সনাক্ত হয়, তবে কিছু চিকিৎসক সন্দেহ করেছিলেন যে, ভাইরাসটি আরো আগেই শহরে প্রবেশ করেছিল।

[৮] সমীক্ষার গবেষকরা শহরের সুয়ারেজ সিস্টেম ও নর্দমায় ভাইরাসের চিহ্ন খুঁজে পাওয়া যায় কিনা তা পরীক্ষা করেছিলেন। অপ্রত্যাশিতভাবে, তারা দেখতে পান যে ২৪ ফেব্রুয়ারির আগে নগরীর নর্দমার কিছু কিছু কোণে সার্স-কোভি -২ জিনোমের আরএনএ উপস্থিত ছিল। যখন চিকিৎসকরা স্পেনে প্রথম সংক্রমণের ঘোষণা করেছিলেন এটি তার কয়েকদিন আগের ঘটনা। ফলে এটা নিশ্চিত যে মানব দেহে প্রবেশের আগে সুয়ারেজ লাইনে করোনাভাইরাস ছিল।

[৯] মার্চের প্রথম সপ্তাহে, ভ্যালেন্সিয়ার ৩টি ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্লান্ট থেকে সংগ্রহ করা পানির নমুনাগুলিতে প্রচুর পরিমানে ভাইরাস ‘আরএনএ’র টুকরোর উপস্থিত ছিল। যা ভাইরাসের স্থানীয় সংক্রমণ শুরুর দিকে ইঙ্গিত করে। তখন চিকিৎসকরা কেবল মাত্র ৫০টি সংক্রমণের মামলা নথিভুক্ত করেছিলেন। যাদের আধিকাংশই মহামারিটির হটস্পট বলে পরিচিত স্থানগুলোতে ব্যবসায়িক ভ্রমণ করেছিলেন।

[১০] এ সমস্ত তথ্য ইঙ্গিত দেয়, নগর সুয়ারেজ লাইন ও নর্দমাগুলো নতুন অঞ্চলে ভাইরাসের সংক্রমণের প্রাথমিক সূচক হিসাবে কাজ করতে পারে। এটি কভিড-১৯ এর আরো বিবর্তন পর্যবেক্ষণ এবং ভবিষ্যতের প্রাদুর্ভাব রোধ করতে ব্যবহার করা যেতে পারে। কালের কণ্ঠ, তাস ডটকম

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত