প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বরিশালে ডাক্তার আজাদের মরদেহ উদ্ধার, পুলিশের ধারণা হত্যাকাণ্ড

বরিশাল প্রতিনিধি : [২] বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালের বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি বিভাগের সিনিয়র কনসালট্যান্ট এম এ আজাদের (সজল) ছোট ভাই ডা. শাহরিয়ার উচ্ছাস বাদী হয়ে কোতোয়ালি মডেল থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

[২] ওসি (অপারেশন) মো. মোজাম্মেল হক জানান, মামলায় অজ্ঞাতনামা একাধিক ব্যক্তিকে আসামি করা হয়েছে।

[৩] ডা. আজাদ প্রাইভেট প্র্যাকটিস করতেন মমতা স্পেশালাইজড হাসপাতালে। থাকতেন ওই হাসপাতালের ৭ তলায়। মঙ্গলবার দুপুরে ওই হাসপাতালের লিফটের নিচ থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মমতা হাসপাতালের ৯ কর্মচারীকে আটক করেছে পুলিশ।

[৪] ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের সদস্যদের কাছে ডা আজাদের মরদেহ বুঝিয়ে দেয়া হয়েছে। মরদেহ ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। বুধবার ঢাকায় জানাজা নামাজ শেষে দাফন সম্পন্ন করা হবে বলে নিহতের ছোট ভাই ডা. উচ্ছাস জানিয়েছেন।

[৫] লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরিকারী কোতোয়ালি মডেল থানার উপপরিদর্শক মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, ‘নিহতের শরীরে কিছু আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ডান পায়ের হাঁটুর নিচ থেকে দুটি স্থান ভাঙা, গোড়ালি থেঁতলানো, পায়ের পাতায় দুটি ছিদ্র রয়েছে। এ ছাড়া বাম পায়ের গোড়ালি থেকে নিচ পর্যন্ত থেঁতলানো এবং মাংসপেশি ছিল না। যদি লিফট থেকে পড়ে যেতেন তাহলে মাথা ও শরীরে ক্ষতের চিহ্ন থাকার কথা।’

[৬] নিহতের মামা মো. মনিরুল সরদার বলেন, ‘এম এ আজাদের কোনো শত্রু আছে কি না অথবা তার সঙ্গে কারো কখনো ঝগড়া হয়েছে, এমন কথা আমাদের জানা নেই। তবে শরীরে আঘাতের চিহ্ন দেখে এটা স্পষ্ট বোঝা যায় এম এ আজাদকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে লাশ লিফটের নিচে ফেলে রাখা হয়েছে।’

[৭] চাচা শিহাব হোসেন খোকন বলেন, ‘আজাদের বরিশালে অনেক রোগী আছে। তার ওপর সে এক মাস কোথাও যায়নি। এই এক মাস রোগী দেখার কারণে তার কাছে বড় অঙ্কের টাকা জমা ছিল। ধারণা করা হচ্ছে, সেই টাকা আত্মসাৎ করতে হয়তো কেউ এ ঘটনা ঘটিয়েছে।’

[৮] মমতা স্পেশালাইজড হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. জহিরুল ইসলাম বলেন, ‘এম এ আজাদের মৃত্যু কোনো দুর্ঘটনা না অন্য কিছু তা বুঝতে পারছি না। তিনি ভদ্র ও ভালো মানুষ ছিলেন। তাঁর সঙ্গে কারো দ্বন্দ্ব হয়েছে কিংবা তাঁর কোনো শত্রু আছে তা আমরা দেখিনি।’

[৯] বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের উপকমিশনার (দক্ষিণ) মো. মোক্তার হোসেন বলেন, ‘লিফট থেকে পড়ে এ ধরনের ঘটনা ঘটার কথা নয়। এটি স্বাভাবিক কোনো দুর্ঘটনা বলেও মনে হচ্ছে না। সুরতহাল ও ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পেলে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে।’ সম্পাদনা : খালিদ আহমেদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত