প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বরিশালে লিফটের নিচ থেকে চিকিৎসকের লাশ উদ্ধার, আটক-৯

খোকন আহম্মেদ , বরিশাল প্রতিনিধি: [২] নগরীর কালিবাড়ি রোডের মমতা স্পেশালাইজড হাসপাতালের লিফটের নিচ থেকে মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালের বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি বিভাগের সিনিয়র কনসালট্যান্ট ডা.এমএ আজাদ সজলের (৪৭) মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

[৩] বিষয়টি নিশ্চিত করে শেবাচিম হাসপাতালের পরিচালক ডাঃ বাকির হোসেন জানান, ডাঃ আজাদের গ্রামের বাড়ি পিরোজপুরের স্বরুপকাঠি উপজেলার সোহাগদল গ্রামে। তার স্ত্রী ও দুই সন্তান ঢাকায় থাকেন। শেবাচিম হাসপাতালে চাকরির সুবাদে তিনি বরিশালেই থাকতেন। প্রাইভেট প্রাকটিসের পাশাপাশি মমতা স্পেশালাইজড হাসপাতালের সাত তলার একটি কক্ষে (ডরমিটরিতে) থাকতেন তিনি।

[৪] পরিচালক আরও জানান, সোমবার দিবাগত রাত থেকে ডাঃ আজাদের সন্ধান পাওয়া যাচ্ছিলো না। অনেক খোঁজাখুঁজির পর সকালে মমতা স্পেশালাইজড হাসপাতালের লিফটের নিচে তার মরদেহ পরে থাকতে দেখা যায়।

[৫] মৃত চিকিৎসক আজাদের স্বজন ও সহকর্মীরা জানিয়েছেন, আজাদের স্ত্রী ও দুই সন্তান ঢাকায় বসবাস করেন। এ কারণে প্রায় বছরখানেক যাবত তিনি নগরীর কালিবাড়ি রোডের মমতা হাসপাতালের সাত তলার একটি কক্ষে বসবাস করতেন। মঙ্গলবার রাতে সেহরির সময় তার স্ত্রী ঢাকা থেকে ফোনে যোগাযোগ করে না পাওয়ায় মমতা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করেন। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তার রুমে তালা দেওয়া দেখে পুলিশকে খবর দেয়।পরে সকালে পুলিশের উপস্থিতিতে ওই কক্ষের তালা ভাঙা হয়। এরপর খোঁজাখুঁজি করে হাসপাতালের লিফটের নিচে তার মরদেহ দেখতে পান মমতা হাসপাতালের এক কর্মী।

[৬] তবে এ মৃত্যুকে প্রাথমিকভাবে সন্দেহজনক বলে মনে করছেন স্বজনরা। তারা ঘটনার তদন্ত ও বিচার দাবি করেন। যদিও এ মৃত্যু দুর্ঘটনাও হতে পারে বলে ধারণা করছেন মমতা হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডাঃ জহিরুল হক মানিক।

[৭] এদিকে ঘটনাস্থলে থাকা কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি মো. নুরুল ইসলাম বলেন, চিকিৎসক নিখোঁজের বিষয়টি সকালে তাদের হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায়। এরপর তারা হাসপাতালে এসে অনুসন্ধান চালিয়ে লিফটের নিচ থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে তার ব্যবহৃত মোবাইল ও চশমা উদ্ধার করা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে বিভিন্ন দিক বিবেচনা করে তদন্ত চলছে।

[৮] ওসি আরও বলেন, লাশের ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। পাশাপাশি মমতা হাসপাতালের লিফটম্যান, হাসপাতালের শিফট ইনচার্জ ও কর্তব্যরতের মধ্যে নয়জনকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় আনা হয়েছে।

[৯] এদিকে সোহাগদল গ্রাম থেকে সংবাদ পেয়ে ছুটে আসা নিহত চিকিৎসকের খালাতো ভাই শিহাব আহমেদ খোকন বলেন, ডাঃ এমএ আজাদ সজলের স্ত্রী কহিনুর বেগম ১ পুত্র ও ১ কন্যাকে নিয়ে ঢাকার কেরানীগঞ্জে বসবাস করেন।সম্পাদনা: জেরিন আহমেদ

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত