প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ‘আমাদের খাদ্য দরকার’ যারা বলছেন, তাদের খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছি : মেয়র আতিক

সুজিৎ নন্দী: [২] ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেছেন, আমাদের ইচ্ছা আছে যারা প্রান্তিক গোষ্ঠী, কখনও সহায়তা পায়নি, তাদেরকে দেওয়া। প্রকৃত খাদ্যসামগ্রী যাদের দরকার আমরা তাদেরকেই দেওয়া সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমরা দিচ্ছি।

[৩] তিনি বলেন, যারা আমাদের কাছে এসেছে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বলেছে তাদেরও পৌঁছে দিচ্ছি। অনেক স্থানে আমাদের কর্মীরা বাসার সামনে রেখে এসেছেন, যাতে তারা লজ্জা না পান। লজ্জার কারণে অনেক পরিবার সামনে আসতে চান না। খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দেওয়ার সময় তাদের সামনে যাইনি।

[৪] আতিকুল ইসলাম বলেন, দেশের বর্তমান অবস্থায় আহ্বান করবো, যাতে বিত্তবানরা এগিয়ে আসে। আমি খেলাম আর আমার প্রতিবেশি অভুক্ত থাকলো, এটা যেন না হয়।

[৫] মেয়র জানান, ত্রাণ বিতরণের কাজে তাকে সাহায্য করছে সামাজিক সংগঠন ‘বিডি ক্লিন’। সংগঠনটির তিন শতাধিক কর্মী প্রতিদিন খাদ্যসামগ্রী প্যাকেট করা থেকে শুরু করে সরবরাহ কাজে নিয়োজিত রয়েছেন। প্রতিটি প্যাকেটে থাকছে চাল, ডাল, আলু, তেল ও সাবান। এ পর্যন্ত প্রায় ২৬ হাজার পরিবারের মাঝে মেয়র আতিকুল ইসলামের উদ্যোগে এসব খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

[৬] একান্ত সাক্ষাতকারে মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে সব চেয়ে বেশি কষ্টে রয়েছে মধ্যবিত্ত। তারা লোকলজ্জায় করে কারো কাছে হাতও পাততে পারে না। এদের অনেকেই বিভিন্নভাবে আমাদের কাছে খাদ্যসামগ্রী সহায়তা চেয়েছেন। কেউ প্রচারমুখী হবেন না।

[৭] তিনি বলেন, করোনাভাইরাসের পরিস্থিতি মোকাবিলায় বিভিন্ন রকমের সহযোগিতায় সবাই নিজ নিজ জায়গা এগিয়ে আসছেন। এই পরিস্থিতিতে সবাই সাড়া দিচ্ছেন। বাকিরাও যদি সবাই এগিয়ে আসেন তাহলে অবশ্যই আমরা করোনাভাইরাসের পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে পারব।

[৮] আতিকুল ইসলাম বলেন, করোনাভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবিলায় সবাই নিজ নিজ জায়গা থেকে এগিয়ে আসছেন। আমি নিজে একটা প্ল্যাটফর্ম চালু করেছি-সবার জন্য সবার ঢাকা। সেখানেও বিভিন্ন জন বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করছেন। বলতে গেলে সবাই এগিয়ে এসেছেন। বাকিরাও যদি এগিয়ে আসেন, তাহলে আমরা এই পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে পারব।

সর্বাধিক পঠিত