প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] স্পেনে করোনা আতঙ্কে স্বাস্থকর্মীদের বাড়ি ছাড়তে বলছে মালিকরা

শাহনাজ বেগম : [২] করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ের সম্মুখভাগে কাজ করছেন ডাক্তার এবং স্বাস্থ্যকর্মীরা। কিন্তু করোনা আতঙ্কে এদের থেকে নিরাপদ দূরত্বে থাকার জন্য বাড়ির মালিকরা তাদের ধারে কাছে মাড়াতে চাচ্ছেন না। ফলে বাড়িতে যে সব স্বাস্থ্যকর্মী ভাড়া আছেন তাদের অন্যত্র চলে যাওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছেন। দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট

[৩] করোনায় আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা করার পর মাদ্রিদের এক হাসপাতাল থেকে বাড়িতে ফিরে এসে ডা. যিশু মনলোর মেন্ডিজ এরকম একটি অবাঞ্ছিত চমক পেয়েছিলেন। তার দরজায় পিন করা একটি নোটে লেখা “হ্যালো প্রতিবেশী হাসপাতালে আপনারা ভাল কাজ করছেন জানি তবে আপনার প্রতিবেশীদের সম্পর্কেও আপনার ভাল কিছু করা উচিত। এখানে শিশু এবং বৃদ্ধ মানুষ আছে। পেশাদাররা একটি হোটেলে থাকছেন। আপনাকে সেটি ভাবতে হবে।”

[৪] ডাক্তার বলেন, প্রথমে বিষয়টি খারাপ লাগলেও এ বিষয়টি তিনি অনুভব করতে পারেন। তবে প্রথম দিকে করনোর বিরুদ্ধে লড়াইয়ের প্রথম সারিতে থাকা ডাক্তার ও নার্সদের কয়েক লক্ষ স্প্যানিয়ার্ড প্রতি রাতে ঘরে ফেরার সময় ব্যালকনিতে বের হয়ে হাততালি দিয়ে ধন্যবাদ জানাতেন।

[৫] ডা. ম্যানলরের মা ক্ষুব্ধ হয়ে এ বিষয়টি ফেসবুকে পোস্ট করলে মুহুর্তে ২০ হাজার সমর্থক তা শেয়ার করে।

[৬] ক্লারা সেরানানো ডেল রে মাদ্রিদের একটি হাসপাতালে করোনা রোগীদের চিকিৎসা করছিলেন তাই তার তিনজন ফ্ল্যাটমেট থেকে নিজেকে দূরে রেখে সমস্ত সতর্কতা অবলম্বন করেছিলেন।

[৭] ৩১ বছর বয়সী নার্স করোনা শনাক্ত হলে হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে বাড়িওয়ালা এবং ফ্ল্যাটমেটকে জানিয়ে স্ব-বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছিলেন।

[৮] করোনায় দেশটিতে ২০ হাজার ২ জন মারা গেছেন এবং ১ লাখ ৯০ হাজার ৮৩৯ জন আক্রান্ত হয়েছেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত