প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] দেশের ব্যবসা ও শিল্পকে রক্ষায় ৩ বছরের একটি পরিকল্পনা প্রনয়ণ করছে এফবিসিসিআই

বিশ্বজিৎ দত্ত: [২] এফবিসিসিআইর সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম জানিয়েছেন, আমাদের প্রাথমিক কাজ হলো সবার চিকিৎসা নিশ্চিত করা। এরজন্য এফবিসিসিআই ওষুধ ও হসপিটাল শিল্পের সঙ্গে জরিত ব্যবসায়ীদের বলেছি এগিয়ে আসার জন্য।

[৩] এরপরে কাজ করছি একটি ৩ বছর মেয়াদী অর্থনৈতিক পরিকল্পনার। সেখানে করোনা পরবর্তী ব্যবসা বাণিজ্যকে কিভাবে সামাল দেয়া যায় তার জন্য কিছু পরিকল্পনা দেয়া হবে।

[৪] বর্তমানে যে প্রণোদনা ব্যবসা ও শিল্পের জন্য দেয়া হয়েছে। পরবর্তীতে তা আরো কিভাবে রুট লেবেল পর্যন্ত যেতে পারে তাও দেখা হবে। দেশে ৪৫ লাখ ছোট ও মাঝারি দোকান রয়েছে। এগুলোও তো চালু হতে হবে। এখানেই মানুষের ভোগ্যপণ্য বিক্রি হয়। বড় শিল্পও তাদের ভোগ্যপণ্য এসব দোকানে রুট পর্যায়ে পৌঁছে দেয়। করোনা পরবর্তী সময়ে এসব নেটওয়ার্ক চালু করা একটি কঠিন কাজ। এফসিসিআই এ বিষয়ে কাজ করছে।

[৫] সামনে বাজেট সরকারের হয়তো এমুহুর্তে কর বাড়ানো ঠিক হবে না। কিন্তু আমরা একটি বাজেট প্রস্তাব বানাচ্ছি যাতে প্রয়োজনিয় ব্যবসাকে সরকার কিছুটা স্বস্থি দিতে পারে।

[৬] এই বক্তব্যগুলোর সঙ্গে বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি আনোয়ার আলম চৌধুরী বলেন, ফসল ভালো হয়েছে মানুষের খাওয়ার হয়তো সমস্যা হবে না। কিন্তু রপ্তানি ও কর্মসংস্থানে বিরাট ধাক্কা লাগবে। এরফলে স্থানীয় বাজারও কমে যাবে। তিনি মনে করনে, সরকারকে স্বচ্ছতার দিকে যেতে হবে। অপ্রয়োজনীয় আমদানি ও খরচ বন্ধ করতে হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত