প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ঘরে কীভাবে সময় কাটাচ্ছেন রাজনৈতিক নেতারা (ভিডিও)

শিমুল মাহমুদ : [২] কেউ বাসায় বই পড়ছেন, কেউ মন দিয়েছেন লেখালেখিতে। কারো সময় কাটছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম আর টিভি দেখে। কেউ আবার ত্রাণ সহায়তা তদারকি করছেন ফোনে ফোনে। দায়িত্বশীলরা ব্যস্ত, করোনা মোকাবেলার কর্ম-পরিকল্পনা প্রণয়নে। করোনায় এভাবেই কাটছে বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতাদের সময়। কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে সারাদিন কাটানো ব্যক্তিরা, অনেকটা বন্দি চার দেয়ালে।

[৩] বিকল্পধারার চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক একিউএম বলেন, প্রথমত বাসা থেকে একদমই বের হই না। কারণ, বয়স অনেক বেশি। এই বয়সটা করোনাভাইরাসের জন্য সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিপূর্ণ। সময় কাটে লেখালিখি করে, বই ও নামাজ পড়ে।

[৪] গণফোরামের সভাপতি ডা. কামাল হোসেন বলেন, বাড়ি থেকে তো বের হতে পারি না। বই, পত্রিকা পড়ছি। টেলিভিশন দেখছি। ভাগ্য ভালো যে মোবাইল ফোন আছে। এ কারণে কিছুটা হলেও সময় ভালো কাটছে। কারণ, সবাই টেলিফোন করছে, আমি নিজেও টেলিফোন করছি। দেশের স্বাধীনতার সময় জেলে ছিলাম। কিন্তু এরকম পরিস্থিতি ছিল না।

[৫] আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য তোফায়েল আহমেদ জানান, বাসায় বসে টেলিভিশনে নিজের দেশ ও বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ সব চ্যানেলে খবর দেখার পাশাপাশি ইন্টারনেটে নিউজ পড়া এখন তাঁর প্রতিদিনকার নিয়ম হয়ে গেছে।

[৬] আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমির হোসেন আমু বলেন, বাসায় আছি। তবে নিজ এলাকার সব সময় খোঁজ-খবর নিতে হচ্ছে। আমার এলাকায় তো ২০টির মতো ইউনিয়ন। সেখানকার মেম্বার ও চেয়ারম্যানদের নিয়মিত ফোন করে খোঁজ নিতে হচ্ছে।

[৭] জেএসডির সভাপতি আসম রব বলেন, বাসায় আছি, এখনো দেশে বিদেশে সবার সাথে যোগাযোগ করে চলছি। সবাইকে বলছি স্ব স্ব উদ্যোগে নিজেদের সাধ্য মতো মানবতার সেবায় এগিয়ে আসেন।

[৮] পুরোপুরি কোয়ারেন্টিনে থাকার কথা জানিয়ে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জানান, নিয়মিত ইবাদতের পাশাপাশি এখন তিনি পবিত্র কোরআনের তর্জমা অর্থাৎ বাংলা অনুবাদ পড়ছেন। তবে অবসর এই সময়টাতে সবচেয়ে বেশি সময় পার করছেন বই পড়ে।

[৯] বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেন, খুবই বোরিং সময় কাটছে। খুবই হতাশার মধ্যে সময় কাটছে। তবে আমার তো ১৪তম বই লেখা প্রায় শেষ। এখন সেটাকে আপডেট করছি। দৈনিক ৭ থেকে ৮ ঘণ্টা বইয়ের কাজে ব্যস্ত সময় পার করছি।

[১০] জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদের বলেন, বাসায় বসেই অফিস করছি। বিকেলে এক্সসারসাইজও চলছে। তবে বই পড়ার পাশাপাশি আমি আবার বিভিন্ন পত্রিকায় লিখছিও। সময় পেলে টেলিভিশনে খবর দেখছি।

[১১] এলডিপির সভাপতি অলি আহমেদ বলেন, ঘরের ভেতর হাঁটাহাঁটি করি আর আল্লাহকে ডাকি। বর্তমান বিপদ থেকে মহান রাব্বুল আল আমিন ছাড়া আর কেউ রক্ষা করতে পারবে না।

[১২] মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, বেশিরভাগ সময় সামাজিক মাধম্য ও টেলিফোন করে কাটে। বাকি সময় লেখাপড়া করে। সূত্র : বাংলাট্রিবিউন, যমুনা টিভি

সর্বাধিক পঠিত