প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ডিএনসিসির মিরপুর টোলারবাগে খাদ্য বিতরন, পরিচ্ছন্নতা ও মশক নিধনকর্মীদের মাস্ক-গ্লাভস-জুতা দিয়েছে

সুজিৎ নন্দী : [২] ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) করোনাভাইরাসের কারণে উদ্ভূত পরিস্থিতি মোকাবিলায় পরিচ্ছন্নতা ও মশক নিধনকর্মীদের মাঝে গ্লাভস ও মাস্ক ৪৩৮টি, বুট জুতা ৪৭ জোড়া বুট জুতা বিতরণ করেছে। কুয়েত-মৈত্রী হাসপাতালের কাছাকাছি যাদের কাজ করতে হয় তাদের মাঝে ১৫টি পিপিই (পারসোনাল প্রোটেকটিভ ইকুইপমেন্ট) বিতরণ করা হয়েছে।

[৩] করোনাভাইরাস মোকাবিলায় ৮টি পানির গাড়ির মাধ্যমে আজ মোট ১ লাখ ১০ হাজার লিটার তরল জীবাণুনাশক ১৬ লাখ ৫০ হাজার বর্গফুট এলাকায় ছিটানো হয়। এছাড়া প্রতিটি ওয়ার্ডের অলিগলিতে, মসজিদের সামনে মশক নিধনকর্মীরা হ্যান্ড স্প্রে ও হুইল ব্যারো মেশিনের সাহায্যে তরল জীবাণুনাশক স্প্রে করে।

[৪] জীবাণুনাশক ছিটানোর স্থানগুলোর মধ্যে অন্যতম শেওড়া ও সংলগ্ন এলাকা, মিরপুর সেকশন ১০, ১৩, ১৪ ও সংলগ্ন এলাকা, কাফরুল, ইব্রাহিমপুর ও সংলগ্ন এলাকা, টেকনিক্যাল মোড়, সনি সিনেমা হল, রাইনখোলা, চিড়িয়াখানা রোড, কমার্স কলেজ ও সংলগ্ন এলাকা, মোহাম্মদপুর টাউন হল, রায়েরবাজার ও সংলগ্ন এলাকা, মধুবাগ, মগবাজার, খিলগাঁও ও সংলগ্ন এলাকা, কলেজগেট, তেজগাঁও, নতুনবাজার, ১০০ ফুট ভাটারা সড়ক ও সংলগ্ন এলাকা।

[৫] ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের উদ্যোগে মিরপুরের টোলারবাগে আটকে পড়া ১ হাজার পরিবারকে নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যদ্রব্য বিতরণ করা হয়। প্রতিটি পরিবারকে ৫ কেজি চাল, ১ কেজি ডাল, ১ কেজি পেঁয়াজ, ২ কেজি আলু এবং ১ লিটার তেল বিতরণ করা হয়। বিদেশফেরত ব্যক্তিদের সেলফ কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করতে ওয়ার্ড কাউন্সিলররা তালিকা করে ঠিকানা অনুযায়ী যাওয়া অব্যাহত রেখেছেন।

[৬] এদিকে করোনাভাইরাস সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ডিএনসিসির ফেসবুক পেজে প্রচার অব্যাহত আছে। এছাড়া বিভিন্ন স্থানে সচেতনতামূলক স্টিকার লাগানো হচ্ছে। বস্তিবাসীসহ প্রতিটি ওয়ার্ডে হাত ধোয়া কার্যক্রম চলছে। সচেতন করার জন্য মাইকিংও করা হচ্ছে।

সর্বাধিক পঠিত