প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘ভুতুড়ে ও ভীত উন্নত দেশ’ বনাম ‘বোকা ও সাহসী উন্নয়নশীল দেশ’

 

রাশেদা রওনক খান: এই মুহূর্তে আমেরিকা ও ইংল্যান্ডের রাস্তাঘাট, দর্শনীয় স্থান, শপিংমল কিংবা যেকোনো পাবলিক প্লেস দেখলে আপনার মনে হবে কোনো ভুতুড়ে এলাকায় দাঁড়িয়ে আছেন। অথচ এ সব জায়গায় নানা দেশ হতে হাজার হাজার দর্শনার্থী এসে ভিড় করতো প্রতিদিন। কোথায় গেলো মানুষগুলো? এই দেশগুলোর অর্থনীতির কী হবে? কীভাবে সামলে নেবে তাদের পরবর্তী দিনগুলো? কিছুই ভাবছে না তারা, কেবল করোনা ছাড়া। এটাই হওয়া উচিত। ‘নিজে বাঁচলে বাপের নাম’ এই প্রবাদ তারা জানেন, কিন্তু আমরা জানি না। আমরা বিষয়টাকে হেলায়ফেলায় নিচ্ছি। নিচ্ছে আমাদের নীতি নির্ধারকেরা, অনেকেই কথা বলছেন কোনো রকম দায়িত্বশীলতার পরিচয় না দিয়ে। যে দেশগুলো চাঁদে গিয়ে নাম লিখিয়েছে নিজেদের, সারা পৃথিবীর রাজনৈতিক-অর্থনীতি নিয়ন্ত্রণ করেন বা করতে চায়, আজ তারাই যখন এই করোনার বিরুদ্ধে প্রতিনিয়ত যুদ্ধ করছে, সেখানে আমরা বোকার মতো মন যা চাইলো, বলে দিচ্ছি এই ধরনের আচরণ করছি কেন? নিজেকে জিজ্ঞাসা করে দেখা যেতে পারে।

লিখছি না কেন যাদের মনে প্রশ্ন, তাদের একটাই উত্তর দিই, লিখে কী হবে? কে শোনে কার কথা? তাই আজ লেখা নয়, কিছু ছবি দিচ্ছি। ছবিগুলোই বলে দেবে, উন্নত দেশগুলো কীভাবে যুদ্ধ করছে করোনার বিরুদ্ধে, আর আমরা কী করছি। হাজার হাজার ছবি পাওয়া যাবে কীভাবে বিশ্বনেতারা, পলিসিমেকার ও স্বাস্থ্যবিষয়ক অভিজ্ঞ মানুষজন ইনফরমাল (এখন ফরমাল কিছুর সময় নয়, তারা জানেন)। আলাপ, পরামর্শ, মিটিং ও আলোচনা করছেন। আমাদের মাঠ লেভেলে সেবা প্রদানের কোনো প্রস্তুতি নেই, কিন্তু প্রেস ব্রিফিং করে জানান দিচ্ছি সব ঠিকঠাক। কী হবে যখন করোনার কাছে সব বেঠিক ধরা পড়বে, ভেবে রাখছেন তো সবাই? তুলনা করার কিছু নেই, তবুও করছি কে জানে, হয়তো এসব উন্নত দেশগুলো হয়ে যাবে কোণঠাসা, উঠে আসবে এশিয়ার কোনো দেশ বিশ্বের এক নম্বর স্থান দখল করে। ফেসবুক থেকে

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত