প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

করোনা নিয়ে দেশে হচ্ছেটা কী?

রবিউল আলম : প্রতিদিন খবরের কাগজ খুললেই আতঙ্কিত হই। করোনার খবর পত্রিকাজুড়ে। কতোজন মানুষ ভালো হয়ে বাড়ি ফিরেছে, সে খবর নেই বাংলাদেশে একজন ৭০ বছরে রোগী মারা গেছে, সকল মিডিয়ায় তুলকাম কা-। করোনাকে এতোটাই আতঙ্কিতভাবে প্রচার করা হচ্ছে, সাধারণ মানুষ আতঙ্কিত না হয়ে উপায় কী?
মানুষ মরণশীল, প্রতিদিন একলাখ সাতান্ন হাজারের মতো মানুষ মরছে, দু’লাখের উপরে জন্ম গ্রহণ করছে, খবর কে রাখে। আপদকালীন সময়তো আসতেই পারে, মারা যাওয়ার আগেই আমাদের মেরে ফেলানো হচ্ছে। করোনারভাইরাসের চেয়ে, প্রচারণা ভাইরাস আমার কাছে ভয়াবহ মনে হচ্ছে। বাঙালি অল্পতেই কাবু হয়, ঘুরে দাঁড়ালে পলকেই হয়। কলেরা, ডায়রিয়া, বসন্ত, এনথ্রাক্স, ঘুর্ণিঝড়, জলোচ্ছ্বাস, মহামারী আমরা অনেক দেখেছি।

একচিমটি লবণ আর গুড় দিয়ে ডায়রিয়া ভালো হয়। করোনা হয়তো এমনি কিছুর মাঝে লুকিয়ে আছে, একটু সচেতন থাকুন, সাহস সঞ্চয় করুণ। মারা যাবার আগেই আমরা মরতে চাই না। আমাদেরকে মেরেও ফেলবেন না। প্রচার কিন্তু বৃহৎ শক্তি। করোনার জন্য সব উন্নয়ন থামিয়ে দিলে, ঘরে ভেতরে বসে থাকলে, করোনার অভয় অরণ্য হয়ে যাবে না তো। করোনা হয়তো থাকবে না, তবে করোনার প্রচারণা আমাদের হাতধোয়া শিখিয়ে দিয়ে গেলো, পরিষ্কার-পরিছন্ন হতে শেখাচ্ছে। বাঙালি ভয় পায়, আমি বিশ্বাস করি না। ভয়কে জয় করা আমাদের বৈশিষ্ট্য, আমরা যে বাঙালি। নয় মাসে স্বাধীন করতে পারি, পদ্মাসেতু নির্মাণ করে বিশ্বকে ভাগ করতে পারি। উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় বাংলাদেশ। করোনাকেও জয় করতে পারবো, তাকিয়ে দেখবে বিশ^। চাই সামাজিক ঐক্য, সঠিক প্রচার, কতজনের মৃত্যু, কতোজন আরগ্য, কী কী পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়েছে, কী করতে হবে। হতাশার চেয়ে আশার আলো দেখান। মিডিয়ার ভূমিকা অপরিহার্য। লেখক : মহাসচিব বাংলাদেশ মাংস ব্যবসায়ী সমিতি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত