প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] পোশাকখাতে করোনার ধাক্কা, অর্ডারের শিপমেন্ট স্থগিত করছে ইউরোপ-যুক্তরাষ্ট্রের ক্রেতারা

শিমুল মাহমুদ : [২] এডামস অ্য ব্যবস্থাপনা পরিচালক শহিদুল হক মুকুল বলেন, দেড় লাখ পিস তৈরি পোশাক আগামী পরশু বাহিরে পাঠানোর কথা ছিলো। কিন্তু এখন বায়ার বলছে, ওয়েট অ্যান্ড সি। কাপড়ের যেটা যে অবস্থায় আছে সে অবস্থায় রাখতে বলছেন।

[৩] বিজিএমইএ সাবেক সভাপতি মো: শহিদুল্লাহ আজিম বলেন, ২০২০ সাল আমরা শুরুই করেছি নেকেটিভ প্রবৃদ্ধি নিয়ে। যেটা গত ৭ মাসের প্রবৃদ্ধির চেয়ে পিছিয়ে আছে ৫.৬ পারসেন্ট। তার মধ্যে আবার যোগ হয়েছে করোনাভাইরাস। এর ফলে, যে সকল কাঁচামাল চীন থেকে আসে সে গুলো এখনো শিপমেন্ট বন্ধ। যা ছিলো সেটা প্রায় দেড় মাস আগের। আর যদি কাচামাল না আসে তাহলে আমাদের ফ্যাক্টরি গুলো বসিয়ে রাখতে হবে। কোনো কাজ থাকবে না। এছাড়া আমরা শঙ্খা বোধ করছি সামনে আমাদের রমজান মাস ও ঈদের সময় বেতন বোনাসের ঝামেলাও আছে।

[৪] অর্থনীতি বিশ্লেষক ড.আশিকুর রহমান বলেন, আমাদের যে রপ্তানি পন্যের চাহিদা, সেটা ইউরোপ আমেরিকা হওয়ায় কিছুটা হলেও প্রভাব পরবে। আগামী দুই তিন মাস হয়তো একটা চাপ আসতে পারে।

[৫] এমন প্ররিস্থিতিতে ক্রেতা প্রতিষ্ঠান গুলোর সঙ্গে আলোচনা করে সরকার এবং পোশাক রপ্তানিকারকদের সমাধান খুজতে হবে জানান সেন্টার ফর পলিসি ডায়লগ এর গবেষণা পরিচালক ড. খোন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম। সূত্র : একাত্তর টিভি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত