প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] সেরে উঠলেন বিশ্বের দ্বিতীয় এইচ আইভিতে আক্রান্ত ব্যক্তি অ্যাডাম ক্যাস্টিজেলো

জেরিন আহমেদ : [২] সুস্থ হয়ে উঠলেন অ্যাডাম ক্যাস্টিজেলো নামে ওই ব্যক্তি। চিকিৎসা পদ্ধতি শেষ হওয়ার প্রায় আড়াই বছর প্র হয়ে গেলেও তার শরীরে নতুন করে এইআইভি সংক্রমণের প্রমাণ মেলেনি। এর পরই তাকে সম্পূর্ণ সুস্থ বলে দাবি করেছেন চিকিৎসকরা । জীবনযুদ্ধে জয়ী হওয়ার পরে এবার নিজেকে ‘নতুনভাবে জীবন শুরু করতে চান অ্য়াডাম। সূত্র : নিউজ১৮, পার্স টুডে

[৩] চিকিৎসকরা অবশ্য দাবি করেছেন, কোনও ওষুধ নয়। বরং স্টেম সেল চিকিৎসা পদ্ধতির সাহায্যেই ওই রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন । কারণ তিনি ক্যান্সারেও আক্রান্ত ছিলেন । সেই কারণেই এক সুস্থ ব্যক্তির শরীর থেকে স্টেম সেল নিয়ে তার শরীরে প্রতিস্থাপিত করা হয় । আর তা থেকেই ক্যান্সার তো বটেই, অ্যাডামের শরীরে এইআইভি জীবাণু প্রতিরোধ গড়ে তোলার ক্ষমতা তৈরি হয়।

[৪] ২০১১ সালে টিমোথি ব্রাউন নামে বার্লিনের এক রোগী একই ধরনের চিকিৎসা পদ্ধতির সাহায্যে সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন । কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের শীর্ষ গবেষক রবীন্দ্র কুমার গুপ্ত বলেন, ‘এর থেকেই প্রমাণিত হয় যে এইচআইভি-কে নিশ্চিতভাবে সারিয়ে তোলা সম্ভব।’

[৫] চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, স্টেম সেল প্রতিস্থাপন করায় ওই যুবকের শরীরে নতুন প্রতিষেধক কোষ তৈরি হয়। যার ফলে তার শরীরে এইআইভি-র জীবাণু নতুন করে সংক্রমণ ছড়াতে পারেনি ।চিকিৎসকরা বলছেন, ওই ব্যক্তির স্টেম সেলে এমন একটি জিন ছিলো, যা সচরাচর পাওয়া যায় না।

[৬] তবে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, এই চিকিৎসা পদ্ধতি অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ। ফলে তা বিশ্বের সমস্ত এইচআইভি আক্রান্তের ক্ষেত্রে প্রয়োগ করা সম্ভব নয়। একমাত্র অ্যাডামের মতো যে রোগীরা এইআইভি-র সঙ্গে ক্যান্সারের মতো রোগে আক্রান্ত, তাদের ক্ষেত্রে শেষ অস্ত্র হিসেবে এই চিকিৎসা পদ্ধতি প্রয়োগ করা হয়। তাছাড়া অন্যান্য রোগীদের ক্ষেত্রে এইচআইভি-র প্রচলিত ওষুধের উপরেই ভরসা রাখছেন চিকিৎসকরা ।

সর্বাধিক পঠিত