প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] জয়বাংলা কনসার্টে ‘হলোগ্রাম ও গ্রাফিক নভেল’ পর্বে শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানার একাত্তরের স্মৃতিচারণ দেখে মুগ্ধ সবাই, নির্মলেন্দু গুণ বললেন, প্রধানমন্ত্রী আমার কবিতা পড়েছেন এর চেয়ে বড়ো প্রাপ্তি নেই

দেবদুলাল মুন্না: [২] গত ৭ মার্চ আর্মি স্টেডিয়ামে এ কনসার্ট হয়। এ বিষয়ে রোববার নাট্যজন রামেন্দু মজুমদার বলেন, ‘হলোগ্রাফিক প্রজেকশনে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ মুগ্ধ করেছে। আমার পরিচিত সবাই প্রশংসা করেছেন।’

[৩]কবি নির্মলেন্দু গুণ বলেন, ‘ প্রধানমন্ত্রীর আবৃত্তি শুনে আমি মুগ্ধ। ’ হলোগ্রাফিক শোতে নির্মলেন্দু গুণের ‘স্বাধীনতা, এই শব্দটি কীভাবে আমাদের হলো’ কবিতাটির শেষ কয়েকটি পংক্তি প্রধানমন্ত্রী আবৃত্তি করেন।

[৪] গত ৬ বছর ধরে এই দিনটিতে কনসার্ট হলেও এবার প্রথম যান সরকারপ্রধান।সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশনের প্রতিষ্ঠান ইয়াং বাংলার তত্ত্বাবধানে হয়েছে এই কনসার্ট।

[৫] সন্ধ্যা ৭টা ২০ মিনিটে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, শেখ রেহানা, প্রধানমন্ত্রীর কন্যা সায়মা ওয়াজেদ পুতুল এবং দৌহিত্র ও সিআরআইয়ের ট্রাস্টি রেদওয়ান মুজিব সিদ্দিক উপস্থিত হন।

[৬] শেখ হাসিনা ও রেহানা হলোগ্রাফিক ডকুমেন্টারিতে পালাক্রমে একাত্তর সালের ৭ মার্চ রেসকোর্সের ময়দানের বঙ্গবন্ধু ভাষণ দেওয়ার দিন কি কি বাসায় ঘটেছিল এর বর্ণনা দেন।

[৭] সেদিন বেগম মুজিব দুপুরে খাবারের পর শেখ মুজিবকে বিশ্রাম নিতে বলেন ।

[৮] শেখ মুজিব নিজের রুমে গিয়ে বিছানায় শোন। শেখ হাসিনা বাবার চুলে বিলি কেটে দিচ্ছিলেন। বেগম মুজিব বলেন,তোমার সামনে বাংলার মানুষ, পেছনে পাকিস্তানী বুলেট। তুমি যাও । তোমার মন যা চায় তাই বলবে।তোমার সাথে বাংলার আপামর মানুষ।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত