প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আদালতে ব্যবহৃত ভাষা বাংলা করতে হবে, বললেন অধ্যাপক সলিমুল্লাহ খান

মিনহাজুল আবেদীন: শনিবার বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল একাত্তরে ‘ভাষা ও শিক্ষার দুশ্চিন্তা’ টকশো অনুষ্ঠানে লেখক গবেষক ও সমাজতাত্ত্বিক অধ্যাপক ড. সলিমুল্লাহ খান একথা বলেন।

সলিমুল্লাহ খান বলেন, সংবিধানে ভাষার স্বীকৃতি থাকলেও কর্মক্ষেত্রে তা প্রয়োগ করা হয় না। তবে এটি বাদ দিয়ে বাঙ্গালী জাতি হিসাবে দাঁড়াতে পারবে না। তিনি বলেন, বেশির ভাগ মানুষ ইংরেজি মাধ্যমে বা দেশীয় শিক্ষায় ইংরেজি মাধ্যমে পড়ালেখা করে। ব্যবসা বাণিজ্যের ক্ষেত্রেও এর প্রচলন চালু করা হয়নি। এটা দেশ এবং জাতির জন্য একটা লজ্জাজনক বিষয়। মূলত রাষ্ট্রীয় নীতি বা সরকারের ইচ্ছা শক্তির অভাবের কারণে এটা হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, সর্বস্তরে মাতৃভাষার ব্যবহার করতে হবে। নিজেকে ভালোবাসতে হবে। শিক্ষার উচ্চ পর্যাযের মানগুলোকে বাংলায় করতে হবে। ইংরেজির বিরুদ্ধে লড়তে হবে এবং বাংলাভাষাকে বেশি গুরুত্ব দিতে হবে। সরকারের সকল কার্যক্রম বাংলায় করতে হবে। তবে মাতৃভাষা রক্ষার ক্ষেত্রে রাষ্ট্রকে কঠোর আইন প্রণয়ন করতে হবে।

একই অনুষ্ঠানে কথাসাহিত্যিক আনোয়ারা সৈয়দ বলেন, এখন মানুষের মনে ধারণা তৈরি হয়েছে ইংরেজি ছাড়া কোথাও চলা যায় না। এতে পড়াশোনা করলে দ্রুত চাকুরি পাওয়া যায়। এটা রাষ্ট্রের জন্য বড় একটা হুমকি।

তিনি আরও বলেন, আমাদের সবাইকে সচেতন হতে হবে। নিজের ভাষাকে আকড়ে ধরতে হবে। সব অনিহা থেকে বের হতে হবে। তবে এ বিষয়ের প্রতি সরকারের আরো গুরত্ব দিতে হবে। তাহলে মাতৃভাষার পরিবর্তন আসবে। সম্পাদনা: রাশিদ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত