প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আমাদের জাতীয় পোশাক নেই কেন?

 

জ.ই. মামুন : বিভিন্ন দূতাবাস বা বিদেশি সংস্থার অনেক অনুষ্ঠানের আমন্ত্রণপত্রে পোশাকের উল্লেখ থাকে- লাউঞ্জ স্যুট বা জাতীয় পোশাক। সেসব অনুষ্ঠানে দেখি বেশিরভাগ বাঙালি পুরুষ স্যুট-টাই পরে আসেন, কেউ কেউ পাজামা-পাঞ্জাবিও পরেন আর নারীরা পরেন শাড়ি। খোঁজ নিয়ে দেখলাম, আমাদের জাতীয় পশু (বাঘ- চিড়িয়াখানা ছাড়া যাকে কেউ কোথাও দেখেনি), পাখি (দোয়েল- বিপন্নপ্রায়), ফুল (শাপলা- সবজি হিসেবে খেয়ে ফেলে), ফল (কাঁঠাল- ফরমালিন মিশ্রিত), মাছ (ইলিশ- আকাশ ছোঁয়া দাম এবং মধ্যবিত্তর নাগালের বাইরে), খেলা (হাডুডু- বিলুপ্তপ্রায়), সবই আছে- যেগুলোর সঙ্গে দৈনন্দিন জীবনযাপনের কোনো সম্পর্ক নেই। কিন্তু যেই পোশাকের সঙ্গে আমাদের নিত্যদিনের যোগ- সেই পোশাকেরই কোনো জাতীয় পরিচয় নেই। উৎসবে পার্বণে আমরা বাঙালি ছেলেরা পাঞ্জাবিই বেশি পরি। সারা দেশে সবখানে পাঞ্জাবির প্রচলন। সামনে মুজিববর্ষ। বঙ্গবন্ধুও হয়তো জীবনে সবচেয়ে বেশি পরেছেন পাজামা পাঞ্জাবি। আর শাশ্বত বাঙালি নারী মানেই শাড়ি, হোক সে আটপৌরে বা হাল ফ্যাশনের ধাঁচে! এই মুজিববর্ষে পাঞ্জাবি এবং শাড়িকে রাষ্ট্রীয়ভাবে বাংলাদেশের জাতীয় পোশাক ঘোষণা করার দাবি জানাচ্ছি। দৃষ্টি আকর্ষণ : মাননীয় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী Shahriar Alam.. ফেসবুক থেকে

সর্বাধিক পঠিত