প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রাজধানীর ফুটপাত দখলে নজরদারি নিয়ে পুলিশ-সিটি করপোরেশনের পাল্টাপাল্টি অভিযোগ

শরীফ শাওন : হকার মুক্ত ফুটপাত নিশ্চিতে সিটি করপোরেশনর উচ্ছেদ অভিযান অব্যাহত রেখেও মিলছে না সুফল। ঢাকা দক্ষিণের মেয়র সাঈদ খোকন বলছেন, উচ্ছেদের পর নজরদারি না থাকার কারণেই দখলমুক্ত করা যাচ্ছে না ফুটপাতগুলো। অপরদিকে জনপ্রতিনিধিদের দায়িত্ব নিয়ে কথা বলছে পুলিশ। তবে বিশ্লেষকরা মনে করেন, প্রভাবশালীদের চাঁদাবাজির কারণেই দখলমুক্ত করা সম্ভব হচ্ছে না।

সাঈদ খোকন বলেন, পুলিশের পক্ষে নজরদারি সম্ভব না হলে পৃথিবীর কারো পক্ষে সম্ভব না। আমরা যতবারই উচ্ছেদ করবো, হকার বারবারই বসবে। ঢাকা মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার মফিজ উদ্দিন আহমেদ বলেন, জনপ্রতিনিধি, ক্রাইম পুলিশ-ট্রাফিক পুলিশ সকলকে যৌথভাবে কাজ করতে হবে। তবে বিশ্লেষক ইকবাল হাবিব রাজনৈতিক সদিচ্ছার অভাবকেই প্রাধান্য দিয়ে বলেন, হকার ব্যবসার সঙ্গে স্থানীয় রাজনৈতিক মাস্তানরা যুক্ত। তাদেরকে সন্তুষ্ট রেখেই নেতা হবার কারনে এ ধরনের সমস্যা। আইনের কঠোর প্রয়োগ না হওয়াকেও কারণ হিসেবে যুক্ত করেন বিশ্লেষকরা।

ব্রাক বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণায় দেখা যায়, রাজধানীতে মোট ২ লাখ ৬০ হাজার হকারকে গড়ে দৈনিক গড়ে ১৯২ টাকা চাঁদা দিতে হয়। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক হকার বলেন, দৈনিক ৫০০ টাকা করে না দিলে আমরা বসতে পারি না। অর্থাৎ মাসে গুনতে হয় ১৫ হাজার টাকা। সূত্র : সময় নিউজ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত