প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের সঙ্গে একান্ত বৈঠক করলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি

ইয়াসিন আরাফাত : সোমবার হওয়া দ্বিপাক্ষিক এই বৈঠকের কি নিয়ে আলোচনা হয়েছে তা জানা যায়নি। তবে, গত জুলাইয়ের পর এটাই পশ্চিমবঙ্গের প্রশাসনিক প্রধান ও সাংবিধানিক প্রধানের প্রথম বৈঠক। ২০১৯ সালের জুলাই মাসে রাজ্যপাল হিসেবে এ রাজ্যের দায়িত্বভার গ্রহণ করেন জগদীপ ধনখড়। তারপর থেকে ক্রমাগত বিভিন্ন ইস্যুতে বেড়েছে মুখ্যমন্ত্রী-রাজ্যপালের সংঘাত। কিন্তু সাম্প্রতিক বাজেট বক্তৃতায় সেই সংঘাত প্রশমনের ইঙ্গিত দিয়েছিলেন জগদীপ ধনখড়। প্রাথমিকভাবে বিরোধিতা করলেও পড়ে পশ্চিমবঙ্গের জন্য করা বাজেটের খসড়া পাঠ করেন রাজ্যপাল।এনডিটিভি

এদিন একাধিক বিষয়ে দুজনের মধ্যে আলোচনা হলেও, কোনওপক্ষ সেই বিষয়গুলো খোলসা করেনি। তবে, বৈঠকের পর রাজ্যপাল টুইটে লেখেন, মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে আমার প্রায় একঘণ্টার দীর্ঘ আলোচনা হয়েছে। এদিনের বৈঠক ঘিরে আমি সন্তুষ্ট। যদিও টুইটের পাল্টা মুখ্যমন্ত্রী কিংবা সরকারি তরফে পাওয়া যায়নি।

রাজ ভবন সূত্রে জানা যায়, গত ডিসেম্বর থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে আগ্রহী ছিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। কিন্তু একাধিক পূর্বঘোষিত কর্মসূচি থাকায় এযাবৎকাল সময় দিতে পারেননি মমতা। সোমবার সেই সন্ধিক্ষণ পূর্ণ হলো বলে দাবি করেছে রাজ্য ভবন। ইতিমধ্যে একাধিক ইস্যুতে রাজ্য-রাজ ভবন সংঘাত বেড়েছে। যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্বর্ধনা, হেলিকপ্টার বিতর্ক হোক কিংবা বাম শিক্ষার্থীদের দ্বারা মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়র হেনস্থা। প্রতি ক্ষেত্রেই নৈরাজ্য ও আইনশৃঙ্খলার অবনতির প্রসঙ্গ টানতে দেখা গিয়েছে রাজ্যপালকে। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন ঘিরে বিক্ষোভ এবং সে জন্য পুলিশকর্তাকে ধমক’ সেই সংঘাতের আবহ আরও বাড়িয়ে দিয়েছিল।

এদিকে ঝুলে থাকা বিভিন্ন বিলের ভাগ্য নির্ধারণে ডাকা রাজ্যপালের বৈঠকও করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা। এমন উত্তপ্ত সংঘাতের মধ্যেই পশ্চিমবঙ্গে বাজেট অধিবেশন চলাকালীন রাজ্যপাল-মুখ্যমন্ত্রী বৈঠক নির্বাচনের আগে কি নতুন সমীকরণের ইঙ্গিত কি না তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন পশ্চিমবঙ্গের রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত