প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ফায়ার সেফটি এক্সপোতে অত্যাধুনিক অগ্নিনির্বাপক যন্ত্রপাতির সমাহার

নিজস্ব প্রতিবেদক : ইলেকট্রনিক্স সেফটি অ্যান্ড সিকিউরিটি অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ইসাব) উদ্যোগে এ বছর সপ্তমবারের মতো অনুষ্ঠিত হলো ইন্টারন্যাশনাল ফায়ার সেফটি অ্যান্ড সিকিউরিটি এক্সপো-২০২০।

রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে তিন দিনব্যাপী এ মেলা বৃহস্পতিবার উদ্বোধন হয়েছে।

শনিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) ফায়ার সেফটি মেলা ঘুরে দেখা যায়, বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে দর্শনার্থীদের উপচেপড়া ভিড়। দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে রেজিস্ট্রেশনের মাধ্যমে ভেতরে প্রবেশ করছেন দর্শনার্থীরা।

মেলার ভেতরে স্টলগুলোতে ফায়ার প্রটেকশন, ফায়ার ডিটেকশন, সিসিটিভি এবং ভিডিও সার্ভিলেন্স, বিল্ডিং ম্যানেজমেন্ট, অ্যাক্সেস কন্ট্রোল, ফায়ার হাইড্রেন্ট, ফায়ার এলার্ম, ইস্টিংগুইসার (অগ্নিনির্বাপক), পাবলিক অ্যাড্রেস সিস্টেমসহ রেসকিউ এবং ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট সংক্রান্ত আধুনিক সরঞ্জাম ও প্রযুক্তি প্রদর্শিত হচ্ছে।

মেলায় ইউরোভার্সাল ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড এনেছে কোল্ড ফায়ার নামের গাছের পাতা থেকে তৈরি তরল আধুনিক প্রযুক্তির আগ্নিনির্বাপক যা শতভাগ পরিবেশ বান্ধব। কোল্ড ফায়ারের বিশেষত্ব হচ্ছে, এটা ব্যবহারের সাখে মুহুর্তের মধ্যেই আগুনকে ঠান্ডা করে ফেলবে এবং কালো ধোয়াকে মুহুর্তেই সাদা করতে পারে। এছাড়া যে জায়গায় আগুন লাগে সেখানে কোল্ড ফায়ার ব্যবহার করলে আগুন নেভানোর পরে অবশিষ্ট আগুন থেকে পূণরায় আগুন লাগার কোনো সুযোগ নেই। তবে আগুন নেভানোর সময় যদি কোল্ড ফায়ার মানুষের মুখে যায় তাতেও কোনো সমস্যা হবে না, এমনকি অগ্নিকাণ্ডের সময় পানি না পেয়ে কোল্ড ফায়ার খেলেও কোনো সমস্যা হবে না বলে জানায় প্রতিষ্ঠানটি।

ইউরোভার্সাল ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেডের চেয়ারম্যান ড. চিত্তা চঞ্জন দাস বলেন, কোল্ড ফায়ার খুবই উন্নতমানের অ্যালুমিনিয়াম ব্যবহার করা হয়েছে যা দীর্ঘদিন সংরক্ষণ করা যাবে। এছাড়া আমরা পণ্যটির গুণগতমান শতভাগ সঠিক রাখতে বাইরের কোনো প্রতিষ্ঠানকে ডিলারশিপ দিচ্ছি না। যদি কারো প্রয়োজন হয় সেক্ষত্রে আমাদের বিশেষজ্ঞ টিম সার্ভিস দিচ্ছে। আপাতত আমরা বড় বড় প্রতিষ্ঠানের সাথে কাজ করছি। সম্প্রতি আইএফআইসি ব্যাংকের সাথে চুক্তি হয়েছে এবং এই ব্যাংকের সকল শাখায় ‘কোল্ড ফায়ার’ ব্যবহার করা হবে। আরো কিছু বড় প্রতিষ্ঠানের সাথে চুক্তি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। তবে আমাদের উদ্দেশ্য পরিবেশ বান্ধব অগ্নিনির্বাপক এবং প্রতিষ্ঠানের অগ্নিনিরাপত্তা নিশ্চিত করা।

আল-আমিন ট্রেড সিন্ডিকেট এনেছে পাউডারের অটোমেটিক ইস্টিংগুইশার। ৬৮ ডিগ্রি তাপমাত্রায় এ ইস্টিংগুইশার অটোমেটিক সিস্টেমে পিন আউট হয়ে গ্যাসের চাপে পাউডার নিঃসরিত হয়ে ১৮০ স্কয়ার ফিট এলাকার আগুন নিমিষেই নিভিয়ে ফেলবে বলে জানান ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর তৌফিক আহমেদ খান।

ইফসি আহ্বায়ক এবং ইসাবের পাবলিসিটি সেক্রেটারি জাকির উদ্দিন আহমেদ বলেন, এই মেলার মাধ্যমে আমরা ফায়ার সেফটি ও সিকিউরিটির ব্যাপারে সচেতনতা বাড়ানো আমাদের লক্ষ্য। তাছাড়া দেশেই যেন ফায়ার সেফটির সক্ষমতা তৈরি হয় সেজন্য প্রাতিষ্ঠানিক আগ্রহ ও ইনভেস্টমেন্টের ব্যাপারে উদ্যোগী করা।

ইসাব সূত্রে জানা গেছে, মেলায় যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, জার্মানি, ইতালি, তাইওয়ান, তুরস্ক, ইউএই, পর্তুগাল, স্পেন, পোল্যান্ড, সুইজারল্যান্ড, মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর ও ভারতসহ ২৫টি দেশের ফায়ার সেফটি অ্যান্ড সিকিউরিটি ব্র্যান্ডের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের পণ্য প্রদর্শিত হচ্ছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত